ব্যস্ত  জীবন ও দূষিত বাতাসের কারণে আজকাল নানা রোগব্যাধি বাড়ছে। যার মধ্যে রয়েছে ডায়াবেটিস, থাইরয়েড, ক্যান্সার, উচ্চ রক্তচাপ ইত্যাদি। এ কারণে অল্প বয়সেই মানুষ দুর্বল হয়ে পড়ছে। সেই সঙ্গে ফুসফুস সংক্রান্ত নানা জটিলতাও বাড়ছে। যার কারণে শ্বাসকষ্ট হচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে ঘরোয়া কিছু পদ্ধতি অনুসরণ করলে ফুসফুসের কার্যক্ষমতা বাড়বে।

যেভাবে বাড়াবেন ফুসফুসের কর্মক্ষমতা-

গ্রিন টি : ফুসফুস পরিষ্কার করার সবচেয়ে সহজ এবং কার্যকর উপায় হচ্ছে গ্রিন টি। এটি প্রদাহ কমাতেও কাজ করে। গ্রিন টি  ফুসফুসের টিস্যুর ক্ষতিও প্রতিরোধ করে।
ফুসফুস পরিষ্কার করার জন্যও স্টিম  বা ভেপারও ভালো উপায়। স্টিমিং শুধু ফুসফুসের জন্যই নয়, ত্বকের জন্যও ভালো।

যষ্টি মধু: যষ্টি মধু দিয়ে তৈরি চা ফুসফুসের টিস্যুর ক্ষতি করে এমন উপাদান প্রতিরোধ করে। এটি শ্বাসতন্ত্রেরও উন্নতি করে। দারুচিনির চা শ্বাসকষ্ট এবং সংক্রমণ থেকে মুক্তি পেতে সাহায্য করে।

আদা : আদায় থাকা অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টি-ভাইরাল ও অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্য ফুসফুসের সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে সাহায্য করে। এর ফলে বুকে জমে থাকা কফের সমস্যা কয়েক দিনেই সেরে যায়।

যোগব্যায়াম : নিয়মিত যোগব্যায়াম করলেও ফুসফুসের সমস্যা থেকে মুক্তি মেলে।