কুমিল্লা-সিলেট সড়কের দেবিদ্বারে প্রাইভেট কার উল্টে মোহাম্মদ হেকিম মিয়া (৫৫) নামের এক পথচারী নিহত হয়েছেন। এতে অপর এক পথচারী ও যাত্রীসহ ৪ জন আহত হয়। মঙ্গলবার সকাল ৭টার দিকে দেবিদ্বার উপজেলার জাফরগঞ্জ ইউনিয়নের ছগুরা এলাকায় দুর্ঘটনাটি ঘটে।

জানা যায়, সকাল ৭টার দিকে ছগুরাবাজারে নাশতা খেয়ে স্থানীয় ‘পপুলার অ্যাগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ’ এর দুই শ্রমিক হেকিম মিয়া (৫৫) ও সাহিদা বেগম (৪৫) কর্মস্থলে যাচ্ছিলেন। এ সময় কুমিল্লামুখী একটি প্রাইভেট কার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সাথে ধাক্কা খেয়ে পার্শ্ববর্তী জমিতে গিয়ে উল্টে পড়ে।

স্থানীয়রা প্রাইভেট কারের ভেতরে থাকা চালক (৩৫), এক নারী (২৮) ও  কন্যাশিশু (৮) এবং পাশে পড়ে থাকা সাহিদা বেগমকে উদ্ধার করেন। প্রাইভেট কারের যাত্রীদের ভাষ্যানুযায়ী, কারের নিচে চাপা পড়ে থাকা হেকিম মিয়াকে উদ্ধার করা হয়।

দুই শ্রমিককে দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে চিকিৎসক শ্রমিক হেকিম মিয়াকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত সাহিদা বেগমকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করেন। এ সময় প্রাইভেট কারে থাকা চালক ও যাত্রীরা পালিয়ে যান।

নিহত হেকিম মিয়া কিশোরগঞ্জের তাড়াইল উপজেলার গজারিয়া গ্রামের মৃত এহসান আলীর পুত্র এবং অপর আহত শ্রমিক সাহিদা বেগম দেবিদ্বার উপজেলার দক্ষিণ নারায়ণপুর গ্রামের কবির হোসেনের স্ত্রী।

মীরপুর হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ কামাল উদ্দিন জানান, সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত শ্রমিকের মরদেহ পুলিশ ফাঁড়িতে নিয়ে এসেছি। প্রাইভেট কারটি উদ্ধারের প্রক্রিয়া চলছে। তবে প্রাইভেট কারের চালকসহ ৩ যাত্রী পালিয়ে যান। নিহতের স্বজনরা আসার পরই আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।