ডিম খেলে অনেকেরই অ্যালার্জির সমস্যা দেখা দিতে পারে। ছোট থেকে বড় যে কারও মধ্যেই এই সমস্যা দেখা দিতে পারে।  তবে  অনেক সময়ই বহু মানুষ বুঝতে পারেন না যে ডিম থেকেই তার অ্যালার্জি হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে অ্যালার্জির মাত্রা বেড়ে যায় আরও। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কাঁচা ডিম স্পর্শ করলেও অনেকের অ্যালার্জি দেখা দেয়।  ডিম থেকে হওয়া অ্যালার্জির কিছু উপসর্গ দেখা দেয়। যেমন-

১. ডিম খেলে ত্বকের সমস্যা, চুলকানি, ত্বকে ফোলাভাব দেখা দিতে পারে।

২. অ্যালার্জির কারণে চোখ থেকে পানি পড়া, চোখ লাল হয়ে যাওয়া কিংবা চোখ অনবরত চুলকালে বুঝতে হবে অ্যালার্জি দেখা দিয়েছে।

৩. শ্বাস প্রশ্বাসের সমস্যা দেখা দেয় ডিম থেকে অ্যালার্জির কারণে। এছাড়াও হাঁচি, কাশির সমস্যা দেখা দেয়।

৪. ডিম থেকে অ্যালার্জি হলে বমি, তলপেটে ব্যথা, ক্র্যাম্প ধরা, মাথা ঘোরা, বমিভাব কিংবা ডায়রিয়ার সমস্যা দেখা দিতে পারে।

বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা আচমকা বাড়িয়ে দেওয়ার কারণে ডিম থেকে অ্যালার্জির সমস্যা দেখা দেয়। ডিমের সাদা অংশে যে প্রোটিন থাকে, তা আচমকা প্রভাব ফেলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতায়। একইরকমভাবে প্রভাব ফেলে ডিমের কুসুমও। এর ফলে অ্যালার্জির সমস্যা দেখা দেয়।

বিশেষজ্ঞদের মত,এ ধরনের সমস্যায় যারা ভোগেন তাদের ডিম খাওয়া এড়িয়ে চলাই ভালো। তবে, শুধু প্রত্যক্ষভাবে ডিম খাওয়া এড়িয়ে চললেই চলবে না। তার সঙ্গে ডিম দিয়ে তৈরি নানা খাবারও এড়িয়ে যেতে হবে। যদি চিকিৎসক জানিয়ে দেন যে, কোনও ব্যক্তির ডিম থেকেই অ্যালার্জির সমস্যা দেখা দিচ্ছে, তাহলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ মেনেই খাবার খাওয়া দরকার।