শীতকালে অনেকেরই খুশকির সমস্যা বেড়ে যায়। অনেকেই খুশকি দূর করতে বিভিন্ন ধরনের রাসায়নিক ব্যবহার করেন। কিন্তু খুশকি পুরোপুরি নির্মূল করা কঠিন। সেক্ষেত্রে বারবার রাসায়নিক ব্যবহার না করে ঘরোয়া সমাধানের উপর নির্ভর করতে পারেন। যেমন-

নিম : আয়ুর্বেদে নিমকে ‘সর্বরোগহারিনী’বলা হয়। খুশকি দূর করতে, শ্যাম্পু করার আগের দিন রাতে মাথায় নিম তেল মেখে রেখে দিন। উপকার পাবেন । এ ছাড়া নিম পাতা ফুটিয়ে, ঠান্ডা করে, সেই পানি দিয়ে মাথা ধুতে পারেন। কিন্তু সেই দিন আর শ্যাম্পু করা যাবে না।

লেবু : সাইট্রিক অ্যাসিড, ভিটামিন সি এবং জিঙ্ক— এই তিনটি পদার্থের মিশ্রণ খুশকি দূর করতে দারুন কার্যকর। আর এই তিনটি জিনিসই লেবুর রসে রয়েছে। আরও ভাল হয় যদি লেবুর রসের মধ্যে অলিভ অয়েল এবং আদার রস মিশিয়ে নেওয়া যায়।

অ্যালোভেরা : অ্যালোভেরার গুণের শেষ নেই। মাথার ত্বকে কোনও সংক্রমণ হলে তাও নির্মূল করতে পারে অ্যালোভেরা। বাজার থেকে কেনা অ্যালো ভেরা জেল বা পাতা থেকেও জেল বের করে নিয়ে ব্যবহার করতে পারেন মাথার ত্বকে।

আমলকী: শুধু চুল পড়া নয়, যুগ যুগ ধরে খুশকি দূর করতে অনেকেই আমলকীর উপরে ভরসা করেন। সেক্ষেত্রে আমলকি গুঁড়া বা আমলকির রস, দুই-ই ব্যবহার করতে পারেন।

মেথি : সারা রাত পানিতে ভিজিয়ে রাখা মেথি, পরের দিন সকালে পেস্ট করে নিন। এর মধ্যে মিশিয়ে নিন দই এবং লেবুর রস। আধ ঘণ্টা মাথায় মেখে রাখুন এই মিশ্রণ। তার পর মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।