অনেকেই আছেন শিশুকে কথায় কথায় বকেন, দোষারোপ করেন। কিন্তু শুধু শাসন নয়, মাঝেমধ্যে শিশুদের প্রশংসা করাও জরুরি।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্রশংসা শুধু আত্মবিশ্বাস বাড়াতে সাহায্য করে তা নয়, আপনি যখন তার কাজের প্রশংসা করবেন, তখন শিশু বুঝতে পারবে সেই কাজটা করাটা ঠিক। আবার সেই রকমের কোনও কাজ করলে আপনি আবার ভাল বলবেন,সেটাও বুঝতে শিখবে। এইভাবে কোনটা ঠিক, কোনটা ভুল এই সম্পর্কেও তার মনে স্বচ্ছ ধারণা তৈরি হবে। শুধু তাই নয়, তার ভাল মন্দ সম্পর্কে কতটা খেয়াল রাখেন, এই মেসেজটাও শিশুর ছোট মনে অনেকটা প্রভাব ফেলে। ছোট হলেও তারা বুঝতে পারে যে আপনি তার দিকে খেয়াল রাখছেন। একটু যত্নের ছোঁয়া আর আন্তরিকতা,তাতেই শিশুর মন আনন্দে ভরে উঠবে।

শিশুরা জিনিসপত্র এলোমেলো করবে এটাই স্বাভাবিক। এজন্য তাকে বকাঝকা না করে জিনিসপত্র গুছিয়ে রাখতে বলুন। নিজের কাজটা গুছিয়ে করার জন্য তখনই তার প্রশংসা করুন। এতে সে খুশি হয়ে যাবে। আপনার পক্ষ থেকে উৎসাহ পেলে, পরের বার সে এই ভাল কাজটা করার জন্য নিজের থেকেই এগিয়ে আসবে। কিন্তু এর পরিবর্তে যদি আপনি খুব চেঁচামেচি করেন, তাহলে হিতে বিপরীত হবে।

ছোটখাটো কাজ যেমন নিজের জুতা নিজে পরা বা জুতার লেস বাঁধতে পারার মতো কাজ করতে পারলে, শিশুকে ভাল বলুন। দেখবেন এটাই তার কাছে খুব বড় ব্যাপার হয়ে দাঁড়াবে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, শিশুরা ভালোবাসা বুঝতে পারে। আপনার ব্যবহারে তাদের প্রতি যত্ন ফুটে উঠলে নিজেকে আর সে অবহেলিত মনে করবে না। আপনি তার ভাল কাজের জন্য প্রশংসা না করলে সে অন্যভাবে ফের বায়না করে, কান্নাকাটি জুড়ে আপনার মনোযোগ পাওয়ার চেষ্টা করবে। সেটা একেবারেই কাম্য নয়। সবসময় মৌখিকভাবেই ভাল বলবেন, তা নয়। মাঝেমধ্যে শিশুর ভালো কাজের জন্য তাকে কিছু উপহারও দিন।

অন্যদের সঙ্গে থাকলে, শুধু নিজের সন্তানের প্রশংসা করবেন না। অন্য বাচ্চাদেরও ভাল বলুন। না হলে  শিশুর মধ্যে অহঙ্কারভাব বা ঔদ্ধত্য দেখা যেতে পারে। আর এভাবে সে নিজেও বন্ধুদের ভাল দিকগুলো প্রশংসা করতে শিখবে। বাচ্চার জন্যে স্টার চার্ট করতে পারেন। প্রতিটা ভাল কাজের জন্যে একটা করে স্টার। এরকম করে ফাইভ স্টার হবে, তারপরে টেন স্টার। প্রতিটা ধাপে পৌঁছতে পারলে পুরস্কার পাবে। ধরুন আপনি চাইছেন শিশু যেন নিজের হোমওয়ার্ক নিজে করে। প্রথম দিন হয়তো একটা বিষয়ের হোমওয়ার্ক নিজে শেষ করল, সেদিন একটা স্টার। এভাবেই পরের দিন আরও একটা স্টার। বোর্ডে গোল্ডেন স্টারের সংখ্যা বাড়লে শিশু মজাও পাবে। শিশুর প্রশংসা করলে তার ব্যবহারেও পরিবর্তন আসবে। সে অনেক আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠবে।