শেরপুরে আরও ৪ ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত

প্রকাশ: ৩১ জুলাই ২০১৯      

শেরপুর প্রতিনিধি

জেলা শহরে ময়লার স্তুপ- সমকাল

শেরপুরে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। বুধবার দুপুর ১২টা পর্যন্ত জেলা হাসপাতালে আরও ৪ ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছেন।

এ নিয়ে শেরপুরে ২১ ডেঙ্গুরোগী শনাক্ত হয়েছেন। এর মধ্যে জেলা হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন ১৪ জন ডেঙ্গু রোগী।

নতুন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হওয়া চারজন হলেন- সুমন মিয়া, তানজিম ইসলাম, সুলায়মান আহমেদ ও রাসেল মিয়া। তারা ঢাকা থেকে শেরপুরে বাড়ি আসার পর জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মঙ্গলবার রাতে জেলা হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

এদিকে, ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসায় জেলা হাসপাতালে আলাদা ডেঙ্গু কর্নার খোলা হয়েছে। আক্রান্তদের ডেঙ্গু কর্নারে বিশেষ পরিচর্যায় চিকিৎসা চলছে।

জেলা হাসপতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. খাইরুল কবির সুমন বলেন, বর্তমানে ফ্লুইড ম্যানেজমেন্টের মাধ্যমে ডেঙ্গু রোগীদের চিকিৎসা চলছে। স্থানীয়ভাবে ডেঙ্গু নিয়ে আতংকিত হওয়ার কিছু নেই। তবে সামনে ঈদের সময় ঢাকা থেকে গ্রামের বাড়িতে বেড়াতে আসা লোকজনের চাপ বাড়বে। তখন ডেঙ্গু পরিস্থিতি হয়তো কিছুটা জটিল হতে পারে।

এদিকে গত দুই সপ্তাহ ধরে পৌরসভার কর্মচারিরা ময়লা-আবর্জনা পরিষ্কার না করায় শেরপুরে ডেঙ্গু আতঙ্ক বেড়েছে। পৌর এলাকাসহ নকলা-নালিতাবাড়ী ও শ্রীবরদী পৌর এলাকায় আবর্জনার স্তুপ জমেছে। ডাষ্টবিনের গন্ধে রাস্তায় চলাচল করা যাচ্ছে না।

শেরপুর পৌরসভার সজবরখিলা এলাকার বাসিন্দা সুমন খান বলেন, 'পৌরসভার মেয়র ও কর্মচারিদের অমানবিক বললেও ভুল হবে। উনারা ক্ষমতা পেয়ে যা খুশি তাই করছেন। দেশে ডেঙ্গু নিয়ে মানুষ দুর্ভোগে আছেন। আর পৌর কর্তৃপক্ষ কাউকে তোয়াক্কা করছে না।'

শেরপুর পৌরসভার মেয়র ও আওয়ামী লীগ নেতা গোলাম কিবরিয়া লিটন বলেন, কর্মচারীরা আন্দোলন করছে। দেখা যাক কি হয়।