শেরপুরে বাস-সিএনজির মুখোমুখি সংর্ঘষে প্রাণ গেল ৩ জনের

প্রকাশ: ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯     আপডেট: ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯      

শেরপুর প্রতিনিধি

শেরপুরের নকলা উপজেলার শেরপুর-ঢাকা মহাসড়কে যাত্রীবাহী বাস ও সিএনজিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংর্ঘষে প্রাণ গেল সিএনজিচালকসহ ৩ জনের। রোববার রাত ৭টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। 

নিহত তিনজনের মধ্যে তাৎক্ষণিকভাবে দু'জনের পরিচয় জানা গেছে। তারা হলেন- শেরপুর সদর উপজেলার খুনুয়া বটতলা এলাকার শামসুল হকের ছেলে সিএনজিচালক বিলতাল হোসেন (২২) ও জামালপুরের গেরামারা এলাকার সুরুজ্জামানের ছেলে সিএনজিযাত্রী হাবিবুর রহমান (৫০)। হাবিবুর রহমান থাকতেন নকলার চরমধুয়া গ্রামে। 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, সিএনজিচালিত অটোরিকশাটি ময়মনসিংহ থেকে যাত্রী নিয়ে নকলার চিথলিয়া এলাকায় পৌঁছালে ঢাকা থেকে আসা বিপরীতমুখী এফজেড লাইন নামের (ঢাকা মেট্টো-ব ১২-০০৫) যাত্রীবাহী একটি বাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে সিএনজিটি দুমড়ে-মুচড়ে যায় ও বাসটি সড়কের পাশে পড়ে যায়। স্থানীয়রা এসে সিএনজির নিচে চাপা পড়ে থাকা চালক ও চার যাত্রীকে উদ্ধার করে নকলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠান। সেখানে চিকিৎসকরা সিএনজিচালক বিলতালকে মৃত ঘোষণা করেন। গুরুতর আহত ৪ যাত্রীকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে পাঠানো হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১০টার দিকে হাবিবুর রহমান ও অপর এক যাত্রী মারা যান। 

নকলা থানার ওসি মো. আলমগীর শাহ বলেন, আহত অপর দুই যাত্রীর অবস্থাও সংকটাপন্ন বলে চিকিৎসরা জানিয়েছেন। বাসটি আটক করা হয়েছে। বিলতালের লাশ থানায় আনা হয়েছে।