এই প্রজন্মের অনেকেই কাছেই 'ক্রাশ' ছিলেন চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা। ক্রাশ ছিলেন চিত্রনায়ক বাপ্পি চৌধুরীর কাছেও। গত বছর তাই পূর্ণিমার জন্মদিনে শুভ কামনা জানিয়ে ফেসবুকেই পূর্ণিমাকে মনের কথাগুলো লিখে জানিয়েছিলেন। সেখানে বাপ্পি লিখেছিলেন, 'আপনি আমার ক্রাশ। এ জন্য এখনো বিয়ে না করে আপনার জন্য অপেক্ষা করছি।'

বৃহস্পতিবার রাতে পূর্ণিমার বিয়ের খবর এলে মন খারাপ হয় বাপ্পির। কিছুটা মর্মাহতও হোন। নতুন বরের সঙ্গে পূর্ণিমার বিয়ের ছবিটি ফেসবুকে পোস্ট করে ক্যাপশনে কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবরের 'ও প্রিয়া তুমি কোথায়' গানের কয়েক লাইন তুলে দিয়েছেন। 

পূর্ণিমা গত ২৭ মে  একটি কোম্পানির মার্কেটিং বিভাগের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা আশফাকুর রহমান রবিনকে বিয়ে করেন। বিয়ের খবর প্রকাশ করেন গতকাল। পূর্ণিমা জানান, কাজের সূত্র ধরেই রবিনের সঙ্গে পরিচয়। তিন বছরের পরিচয় থেকে বন্ধুত্ব, সেখান থেকে পরস্পরের মন দেওয়া-নেওয়া এবং বিয়ে। 


পূর্ণিমা নায়ক বাপ্পির বেশ পছন্দের একজন মানুষ। বয়সে এবং ক্যারিয়ারে বাপ্পির চেয়ে বেশ সিনিয়র পূর্ণিমা। তাই অনেকটা মজার ছলেই তাকে পছন্দের কথা জানান এই নায়ক।  বাপ্পি বলেন, 'আরে পূর্ণিমা হচ্ছেন আমাদের আপু। অভিনেত্রী এবং ব্যক্তি হিসেবে তাকে আমার খুবই পছন্দ। তিনি নিজের সৌন্দর্য কত সুন্দরভাবে মেইনটেইন করছেন- বিষয়টি আমার খুবই ভালো লাগে। অনেকের মতো সত্যি সত্যিই পূর্ণিমা আপু আমার ক্রাশ। '

পূর্ণিমার এটি দ্বিতীয় বিয়ে। ২০০৭ সালের ৪ নভেম্বর আহমেদ জামাল ফাহাদের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন তিনি। তাদের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। তিন বছর আগে তার সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়।