ঋণের জন্য ব্যাংকে আবেদন করার পর খারিজ হলে মন খারাপ হওয়াটাই স্বাভাবিক। কিন্তু তাই বলে আবেদন মঞ্জুর না হওয়ায় ব্যাংকে আগুন দেওয়ার কথা কমই শোনা যায়। শুনতে অবিশ্বাস্য লাগলেও এমনটাই ঘটেছে রোববার গভীর রাতে ভারতের কর্ণাটকের হাভেরি জেলার রত্তিহলি এলাকায়। ঋণের জন্য আবেদন করে তা না পাওয়ায় ব্যাংকে আগুন ধরিয়ে দিয়েছেন এক যুবক।

ওয়াসিম হজরৎসব মুল্লা নামের ৩৩ বছর বয়সী ওই যুবক কানাড়া ব্যাংকের কাছে ঋণের আবেদন করেছিলেন। কিন্তু কাগজপত্র দেখার পর ব্যাংক জানিয়ে দেয় তাকে ঋণ দেওয়া সম্ভব নয়। অনেক অনুরোধ করেও তিনি সাড়া পাননি। তাতেই মেজাজ হারান ওয়াসিম। সেই সময় সেখান থেকে বিদায় নিলেও রোববার রাতে আবার ব্যাংকে ফেরেন তিনি। পুলিশ জানায়, প্রথমে হেদুগোন্ডা গ্রামের ওই ব্রাঞ্চের জানলা ভাঙেন ওয়াসিম। তার ভিতরে পেট্রল ছিটিয়ে দেন। আর তারপরই ধরিয়ে দেন আগুন।

ব্যাংকে দাউদাউ করে জ্বলে উঠতেই পথচারীরা তা লক্ষ্য করেন। ভবন থেকে ধোঁয়া বের হতে দেখে দ্রুত তারা পুলিশকে খবর দেন। খবর পেয়ে পুলিশ ও দমকলবাহিনী ছুটে আসে। আগুন নিয়ন্ত্রণে আসার পর পুলিশ জানায়, ব্যাংকের প্রায় ১২ লাখ টাকার ক্ষতি করেছেন ওয়াসিম।  এর মধ্যে পাঁচটা কম্পিউটার, ফ্যান, আলো, পাসবুক প্রিন্টার, ক্যাশ গোনার মেশিন, নথিপত্র, সিসিটিভি ও ক্যাশ কাউন্টার আগুনে ঝলসে গিয়েছে।

এই ঘটনায় ইতিমধ্যেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে ওয়াসিমকে। তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। সূত্র : এনডিটিভি, নিউজ এইট্টিন

বিষয় : ঋণের আবেদন ব্যাংকে আগুন আগুনের সূত্রপাত

মন্তব্য করুন