মহাবিশ্ব নিয়ে মানবজাতির আগ্রহের যেন শেষ নেই। সৌরজগতের বাইরের ছায়াপথে লাখো-কোটি গ্রহে কোনো সভ্য জাতির বসবাস আছে কিনা তা জানার চেষ্টাও চলছে দশকের পর দশক ধরে। যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা অনেক দিন ধরেই বলে আসছে, মহাবিশ্বের অন্য গ্রহে মানুষের মতো বুদ্ধিমান প্রাণী থাকতে পারে। সেই চিন্তা থেকে তারা ঠিক করেছে, বহির্বিশ্বে একটি সাংকেতিক আমন্ত্রণ বার্তা পাঠানো হবে।

এই বার্তায় পৃথিবীর ঠিকানার পাশাপাশি থাকবে মানুষ সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য। থাকবে নারী ও পুরুষের ছবি, সৌরজগতের বিশদ বিবরণ, পৃথিবীতে কীভাবে আসতে হবে তার খুঁটিনাটিও।

তবে কিছু বিজ্ঞানীর আশঙ্কা, নাসার এই অতি কৌতূহল পৃথিবীর জন্য বিপদ ডেকে আনতে পারে। অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক টবি অর্ডের মতে, কোন ধরনের ভিনগ্রহী বা এলিয়েনরা ওই বার্তা পাচ্ছে, তার ওপর অনেক কিছু নির্ভর করছে। নাসা মহাবিশ্বে যেই সভ্যতা খুঁজছে; বার্তা পাওয়া ভিনগ্রহীরা ততটা 'সভ্য' না-ও তো হতে পারে। তারা যে পৃথিবীতে কোনো খারাপ উদ্দেশ্য নিয়ে এসে পৌঁছাবে না- তার তো কোনো নিশ্চয়তা নেই।
ফল যাই হোক, মহাকাশবিজ্ঞানীরা একটি বিষয়ে একমত, এই আমন্ত্রণপত্র পাঠানোর পদক্ষেপ মহাকাশবিজ্ঞান চর্চায় এক গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক।