সত্যিকারের ভালোবাসার মানুষ খুঁজে পেতে কত সময় লাগে? এক ব্যক্তি দেখিয়েছেন সত্যিকারের ভালোবাসা খুঁজে পেতে ‘এক জীবন’ অপেক্ষা করতে হয় না। ৯৫ বছর বয়সে এসে তিনি খুঁজে পেয়েছেন তার ‘স্বপ্নের রানীকে’। প্রথমবারের মতো বাঁধলেন গাঁটছড়া। ১৯ মে বিয়ে করেছেন তারা। 

২৩ বছর আগে মেয়েটিকে প্রথম দেখেছিলেন একটি গির্জায়। প্রথম দেখাতেই প্রেমে পড়েন তিনি। এরপর অপেক্ষা শেষে সেই গির্জাতেই আঙটি বদল করেছেন তার স্বপ্নের রানীর সঙ্গে। এই যুগলের বিয়েতে তাদের পরিবারের পক্ষ থেকে এসেছিলেন চল্লিশ জন। খবর এনডিটিভির।      

৯৫ বছরের পাত্রের নাম জুলিয়ান মৈলি। আর ৮৪ বছরের পাত্রী ভেলেরি উইলিয়ামস। 

জুলিয়ান বলেন, ‘ভেলেরি খুবই দয়ালু। আমি তাকে বলেছিলাম, ‘আমি তোমার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি।’

তাদের বিয়ের অনুভূতি জানাতে গিয়ে জুলিয়ান বলেন, ‘এটি ‘চমৎকার’। নতুন বছরের মতো।’ 

আর ভেলেরি জানান, ‘আমি এটি বিশ্বাসই করতে পারছি না।’

নব দম্পতি আরও জানান, তারা এখন একসঙ্গে বাকি জীবনটা পার করতে চান। এই বছরের শেষের দিকে তারা অস্ট্রেলিয়ায় হানিমুনে যাবেন বলেও জানান তারা। 

জানা গেছে, জুলিয়ান ১৯৫৪ সালে অস্ট্রেলিয়া থেকে যুক্তরাজ্যে চলে আসেন। সেখানে তিনি ১৯৭০ সাল থেকে ১৯৮২ সাল পর্যন্ত ওয়েলশ ন্যাশনাল অপেরার একক শিল্পি ছিলেন।