কোরাল বা প্রবালের একটি বিরল প্রজাতি পিংক সি ফ্যান। অমেরুদণ্ডী এই প্রাণীর বসতি ভূমধ্যসাগরের দক্ষিণাঞ্চল থেকে উত্তর আয়ারল্যান্ডের দক্ষিণ-পশ্চিমাংশ এবং ওয়েলস ও ইংল্যান্ডের উত্তরাংশের উপকূলে। দীর্ঘদিন এই গোলাপি কোরাল খুব একটা নজরে না পড়ায় আশঙ্কা করা হচ্ছিল- এরা হারিয়ে যাচ্ছে। এদের প্রবালের বিপন্ন প্রজাতি ঘোষণা দিয়ে সুরক্ষার উদ্যোগ নেয় যুক্তরাজ্য সরকার। সম্প্রতি গুরুত্বপূর্ণ প্রজাতি আখ্যা দিয়ে বিলুপ্ত হওয়ার ঝুঁকিতে থাকা প্রাণীর তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হয় এই প্রবালের নাম।

তবে ইংল্যান্ডের ইউনিভার্সিটি অব এক্সেটারের বিজ্ঞানীদের গবেষণায় জানা গেছে, পিংক সি ফ্যান বিলুপ্ত নয়, বরং ঠিকানা পরিবর্তন করছে। এরা বৈশ্বিক উষ্ণতা বেড়ে যাওয়ায় হুমকিতে পড়েছে, তাই বাঁচার জন্য অন্যত্র ছুটছে। গবেষক টম জেনকিন্স বলেন, ২০৮১ থেকে ২১০০ সালের মধ্যে এদের নতুন বসতি হয়ে উঠতে পারে বিস্কে উপসাগর, যুক্তরাজ্য এবং নরওয়ের দক্ষিণাঞ্চলের উপকূল। জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে এরা সরে যেতে পারে আরও উত্তর দিকে। গবেষণায় কোরালের আরেকটি প্রজাতির দিকে নজর দেওয়া হয়েছে। এর নাম ডেড মেনস ফিঙ্গারস। উষ্ণায়ন বেড়ে যাওয়ায় এরাও পিংক সি ফ্যানের মতো দক্ষিণের উপকূল থেকে উত্তর দিকে সরে যাচ্ছে। সূত্র :সায়েন্সটেক ডেইলি।