সামরিক জোট ন্যাটোতে যোগদানের ব্যাপারে প্রতিবেশী দেশ ফিনল্যান্ডের দেখানো পথেই হাঁটল সুইডেন। সুইডেন সরকার জানিয়েছে, ন্যাটো সদস্যপদের জন্য আবেদনের ব্যাপারে দেশটি আনুষ্ঠানিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে। 

সোমবার কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা জানিয়েছে, নর্ডিক অঞ্চলের দেশ দুটির ন্যাটোতে যোগ দেওয়া মানে উত্তর ইউরোপের ভূ-রাজনৈতিক মানচিত্রের নতুন বাঁক নেওয়া। 

নিরাপত্তা নীতি নিয়ে সুইডেনের পার্লামেন্টে আলোচনার পর দেশটির প্রধানমন্ত্রী ম্যাগডালেনা অ্যান্ডারসন বলেছেন, ন্যাটোতে যোগদানের ব্যাপারে সুইডেনের পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠের সমর্থন রয়েছে। 

তিনি বলেন, সুইডেন এবং এর জনগণের জন্য ভালো দিক হলো ন্যাটোতে যোদ দেওয়া। এর আগে রোববার ফিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী সানা মারিন ন্যাটোর সদস্যপদ পেতে দেশটি আনুষ্ঠানিকভাবে আবেদন করবে বলে ঘোষণা দেন। 

এদিকে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, ফিনল্যান্ড এবং সুইডেনের সামরিক জোট ন্যাটোতে যোগদানকে সরাসরি হুমকি হিসেবে দেখছে না রাশিয়া। তবে দেশ দুটিতে সামরিক অবকাঠামো স্থাপন হয়তো মস্কোর পক্ষ থেকে প্রতিক্রিয়া দেখানোর আশঙ্কা বাড়াবে। 

পুতিন বলেন, নর্ডিক জাতিদের ন্যাটো সদস্যপদ আমাদের জন্য সরাসরি হুমকি নয়… তবে এই অঞ্চলে সামরিক অবকাঠামো সম্প্রসারণ নিশ্চিতভাবেই আমাদেরকে প্রতিক্রিয়া দেখাতে উসকানি দেবে।