সরকার বিপদে মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে না বলে অভিযোগ করেছেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আবদুর রব। আজ বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে তিনি এ অভিযোগ করেন।

আবদুর রব বলেন, বন্যার ভয়াবহ সংকট মোকাবিলায় সরকারের ভূমিকা খুবই হতাশাজনক। বন্যায় যে টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে, তা খুবই অপ্রতুল। মানুষের বিপদে তাদের পাশে দাঁড়াচ্ছে না সরকার। দৃশ্যমান স্থাপনা নির্মাণেই উৎসাহী আওয়ামী লীগ। জনজীবনের সুরক্ষা তাদের কাছে মুখ্য নয়; এটাই সরকারের উন্নয়ন-দর্শন।

তিনি বলেন, স্রোতে তলিয়ে যাওয়া হতভাগা মানুষের লাশ ভাসছে। কারও লাশ হাওরে, আবার কারও লাশ খালের পানিতে। দাফনের জন্য মাটি মিলছে না। দিনের পর দিন পলিথিনে মুড়িয়ে রাখা হচ্ছে লাশ। দাফনের জায়গা না পেয়ে কেউ কেউ প্রিয়জনের লাশ ভাসিয়ে দিচ্ছেন বানের পানিতে। মৃত বা নিখোঁজের সংখ্যা কত সরকার তাও প্রকাশ করতে পারছে না। সিলেট অঞ্চলে বন্যার ভয়াবহতা কল্পনাতীত। বন্যায় নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে।

জাসদ সভাপতি বলেন, বন্যাকবলিত এলাকার মানুষ এখন দিশেহারা। সামগ্রিক বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হচ্ছে। ত্রাণ ও বিশুদ্ধ খাবার পানির অভাবে বানভাসিদের ত্রাহি অবস্থা। যোগাযোগ ব্যবস্থা ভেঙে পড়ায় দুর্গম এলাকার দুর্গত মানুষ কোনো ত্রাণ সহায়তা পাচ্ছেন না। ত্রাণের জন্য হাহাকার। নিরাপদ পানির তীব্র অভাব।

বিবৃতিতে বলা হয়, বন্যা পরিস্থিতি এখন আশঙ্কাজনক পর্যায়ে পৌঁছেছে। যথাসময়ে বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ থাকার পরও প্রাণহানি কমানো বা দুর্যোগ মোকাবিলায় সরকারের পক্ষ থেকে কোনো ধরনের পূর্বপ্রস্তুতি নেওয়া হয়নি। প্রাকৃতিক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার ঘাটতির কারণে লাখ লাখ মানুষ আশ্রয়হীন হয়ে পড়েছে।