জলবায়ু পরিবর্তনসহ দূষণের কারণে হুমকির মুখে বিশ্বের সাগর-মহাসাগরগুলো। মহাসাগর রক্ষায় কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়ার লক্ষ্যে পর্তুগালের রাজধানী লিসবনে চলছে জাতিসংঘ মহাসাগর সম্মেলন। গত সোমবার থেকে পাঁচ দিনব্যাপী জাতিসংঘের দ্বিতীয় এই মহাসাগর সম্মেলন শুরু হয়। এতে যোগ দিতে লিসবনে এখন বিশ্বের ১২০ দেশের ৭ হাজার প্রতিনিধি। আছেন বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রপ্রধান, সরকারের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি ও গবেষকরা। 

বাংলাদেশের প্রতিনিধি হিসেবে যোগদান করেন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মেরিটাইম অ্যাফেয়ার্স ইউনিটের সচিব অবসরপ্রাপ্ত রিয়ার অ্যাডমিরাল মো. খোরশেদ আলম, পর্তুগালে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত তারিক আহসান এবং দূতাবাসের দ্বিতীয় সচিব আব্দুল্লাহ আল রাজি ও আলমগীর হোসেন।

প্রতিনিধি দলটি উদ্বোধনী দিনে অ্যাড্রেসিং মেরিন সলিউশন শীর্ষক একটি পূর্ণাঙ্গ অধিবেশনে ও মঙ্গলবার টেকসই সমুদ্রভিত্তিক অর্থনীতির প্রচারক শক্তিশালীকরণ (বিশেষ করে ক্ষুদ্র দ্বীপের উন্নয়নশীল দেশ এবং স্বল্পোন্নত দেশগুলোর জন্য) শীর্ষক ইন্টার-অ্যাকটভ সংলাপে বিশ্ব নেতাদের সঙ্গে অংশ নেন।

উদ্বোধনী দিনের অনুষ্ঠানে অংশ নেন পর্তুগালের রাষ্ট্রপতি মার্সেলো রেবেলো ডি সউজা, কেনিয়ার প্রেসিডেন্টসহ বিভিন্ন দেশের সরকারের প্রতিনিধিরা। বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেনও সম্মেলনে যোগ দিচ্ছেন। সোমবার শুরু হওয়া পাঁচ দিনের এ সম্মেলনের পর্দা নামবে শুক্রবার। সমুদ্র ও সামুদ্রিক সম্পদ রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ চুক্তি হওয়ারও কথা রয়েছে সম্মেলনে।