ঢাকা সোমবার, ২০ মে ২০২৪

আ.লীগ নৈরাজ্য সৃষ্টি করে একদলীয় নির্বাচন চায়: বিএনপি

আ.লীগ নৈরাজ্য সৃষ্টি করে একদলীয় নির্বাচন চায়: বিএনপি

ফাইল ছবি

সমকাল প্রতিবেদক

প্রকাশ: ২০ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ০৯:৫১ | আপডেট: ২০ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ০৯:৫১

গুম, খুন, মিথ্যা মামলা, হামলার মাধ্যমে নৈরাজ্য সৃষ্টি করে আওয়ামী লীগ সরকার আরও একটি প্রহসনের একদলীয় নির্বাচন করতে চায় বলে বিএনপি মনে করছে। বিএনপির সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটি বলেছে, হত্যার উদ্দেশ্যে বিএনপি নেতা ও তাঁদের পরিবারের সদস্যদের ওপর হামলা, বাসাবাড়ি, ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ এবং শান্তিপূর্ণ গণতান্ত্রিক কর্মসূচিতে হামলায় আবারও প্রমাণিত হয়েছে- বিরোধী দলবিহীন একটি সাজানো নির্বাচন অনুষ্ঠান করে ক্ষমতায় থাকাই আওয়ামী লীগের মূল লক্ষ্য।

গত সোমবার রাতে স্থায়ী কমিটির ভার্চুয়াল সভায় নেতারা এ অভিমত জানান। মঙ্গলবার সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ওই সভার বিষয়বস্তু জানানো হয়। 

সভায় বলা হয়, গত শনিবার ঢাকা ও কুমিল্লায় শান্তিপূর্ণ মোমবাতি প্রজ্বালন কর্মসূচিতে আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসীদের বর্বরোচিত হামলায় দলের কয়েকজন শীর্ষস্থানীয় নেতা গুরুতর আহত হয়েছেন। এসব ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ জানানো হয়। সভায় হামলার সঙ্গে জড়িত সন্ত্রাসীদের চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয়।

সভায় বলা হয়, শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে হামলা ও পুলিশের গুলিবর্ষণ প্রমাণ করে- আওয়ামী লীগ সন্ত্রাস সৃষ্টি করে গণতান্ত্রিক আন্দোলনকে দমন করতে চায়। সম্প্রতি চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মোমিনুর রহমানের প্রকাশ্যে আওয়ামী লীগের পক্ষে দোয়া চাওয়াকে প্রশাসন দলীয়করণের নগ্ন প্রকাশ বলে সভায় মত দেওয়া হয়। বিএনপির স্থায়ী কমিটি মনে করে, অনির্বাচিত অবৈধ সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য প্রশাসনসহ রাষ্ট্রীয় সব প্রতিষ্ঠান দলীয়করণ করছে। ওই ডিসিকে বরখাস্ত করার দাবি জানানো হয় সভায়।

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সভাপতিত্বে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. আব্দুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, সেলিমা রহমান ও ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু আলোচনায় উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন

×