রাজনীতি

'বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মাধ্যমে জাতিসত্ত্বাকে হত্যার প্রচেষ্টা করা হয়'

প্রকাশ: ২৯ আগস্ট ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

ফাইল ছবি

বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড নিছক কোনো রাষ্ট্রনায়কের হত্যাকাণ্ড নয়। এ হত্যাকাণ্ডের মাধ্যমে একটি জাতিকে, একটি রাজনীতিকে হত্যা করা হয়। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মাধ্যমে বাঙালি জাতিসত্ত্বাকে হত্যার প্রচেষ্টা করা হয়। খুনিরা জাতির পিতাকে হত্যার পর এদেশকে পাকিস্তানকরণের প্রক্রিয়া শুরু করেছিল।

বুধবার গণপূর্ত অধিদপ্তর আয়োজিত এক আলোচনা সভায় গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসন প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে পূর্ত ভবনের সম্মেলন কক্ষে এ আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

গণপূর্তমন্ত্রী বলেন, বাঙালি চেতনায় বিশ্বাসী কেউ বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করতে পারে না। এটা বঙ্গবন্ধু দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করতেন। বাঙালি জাতির আন্দোলন-সংগ্রামের ঠিকানা তার প্রিয় ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে অতি সাধারণ নিরাপত্তায় বসবাস করতেন। যারা বঙ্গবন্ধু হত্যার সাথে জড়িত তারা মূলত এ দেশের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী ছিল না। সেনাবাহিনী ও বেসামরিক ব্যক্তিদের মধ্যে অবস্থান করা স্বাধীনতাবিরোধীরা এ হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু আজীবন সংগ্রাম করেছেন এ জাতির মুক্তির জন্য। রাজনীতির ঘটনাপ্রবাহের মধ্যে সঠিক সিদ্ধান্ত গ্রহণই ছিল তার রাজনৈকি দূরদর্শিতা। অনেক বর্ষীয়ান নেতাও ১৯৭০ সালের সাধারণ নির্বাচনে সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারেননি। কিন্তু বঙ্গবন্ধু ছয়দফার ভিত্তিতে এ নির্বাচনে অংশ নিয়ে এ দেশের স্বাধীনতার দুয়ার খুলে দেন। তাই এটি প্রতিষ্ঠিত সত্য যে, বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে এ দেশ স্বাধীন হতো না।

গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী মো. রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন গৃহায়ণ ও গণপূর্ত সচিব মো. শহীদ উল্লা খন্দকার, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান ও প্রধান স্থপতি কাজী গোলাম নাসির।

আরও পড়ুন

এমসি কলেজ ছাত্র সংসদ ভবনই বেদখলে

এমসি কলেজ ছাত্র সংসদ ভবনই বেদখলে

প্রায় তিন দশক পর দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শুরু ...

ইটভাটায় আইন লঙ্ঘনের জরিমানা বাড়ছে

ইটভাটায় আইন লঙ্ঘনের জরিমানা বাড়ছে

পরিবেশ বিপর্যয় ঠেকাতে ইটভাটা নির্মাণ ও ইট প্রস্তুতের ক্ষেত্রে আইন ...

শাঁখারি কার্ত্তিকের 'বাড়ি' বাঁচানোই দায়

শাঁখারি কার্ত্তিকের 'বাড়ি' বাঁচানোই দায়

শাঁখারি কার্ত্তিক চন্দ্র সেন। বাড়ি ডেফলচড়া শাঁখারিপাড়া। পাবনার চাটমোহর উপজেলার ...

মন্ত্রিসভায় উঠছে যুদ্ধাপরাধীদের সম্পদ বাজেয়াপ্ত আইন

মন্ত্রিসভায় উঠছে যুদ্ধাপরাধীদের সম্পদ বাজেয়াপ্ত আইন

একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধীদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করতে নতুন আইন করছে সরকার। ...

নতুন নৌবাহিনী প্রধান আওরঙ্গজেব চৌধুরী

নতুন নৌবাহিনী প্রধান আওরঙ্গজেব চৌধুরী

নৌবাহিনীর প্রধান হিসেবে নিয়োগ পেলেন এ এম এম এম আওরঙ্গজেব ...

অন্যকে ফাঁসাতে গর্ভের সন্তানকে হত্যা!

অন্যকে ফাঁসাতে গর্ভের সন্তানকে হত্যা!

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় ১ মাসের শিশু সন্তানকে পানিতে ফেলে হত্যার অভিযোগে ...

মাদ্রাসা শিক্ষকের একী কাণ্ড!

মাদ্রাসা শিক্ষকের একী কাণ্ড!

সিলেবাস দেওয়ার কথা বলে বাসায় ডেকে নিয়ে অষ্টম শ্রেণি পড়ূয়া ...

ভুয়া ভোটে নির্বাচিতরা ভুয়া প্রতিনিধি: সেলিম

ভুয়া ভোটে নির্বাচিতরা ভুয়া প্রতিনিধি: সেলিম

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম একাদশ জাতীয় ...