বন্যাদুর্গতদের পর্যাপ্ত ত্রাণ দেওয়ার দাবি বামজোটের

প্রকাশ: ২২ জুলাই ২০১৯     আপডেট: ২২ জুলাই ২০১৯      

সমকাল প্রতিবেদক

আগামী ২৫ জুলাই থেকে গাইবান্ধা ও কুড়িগ্রাম বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণকার্য পরিচালনা করবে বামজোট

গাইবান্ধা, কুড়িগ্রাম, জামালপুর ও সিরাজগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন এলাকার বন্যা পরিস্থিতির অবনতি এবং নতুন নতুন এলাকা বন্যাকবলিত হওয়ায় গভীর উদ্বেগ জানিয়েছে বাম গণতান্ত্রিক জোট।

নেতারা বলেছেন, অসহায় বন্যাদুর্গত মানুষদের জন্য আশ্রয়কেন্দ্র ও পর্যাপ্ত ত্রাণের ব্যবস্থা করতে সরকারকে উদ্যোগ নিতে হবে।  দেশবাসীকে বন্যাদুর্গতদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান নেতারা। 

সোমবার রাজধানীর পুরানা পল্টনের সিপিবি কার্যালয়ে বাম গণতান্ত্রিক জোটের কেন্দ্রীয় পরিচালনা পরিষদের সভায় নেতারা এসব কথা বলেন।

নদীভরাট হওয়া এবং বাঁধ ভেঙে প্লাবিত হয়ে এবারের বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে জানিয়ে নেতারা এ সময় আরও বলেন, নদীখনন ও বাঁধ নির্মাণে দুর্নীতিই এজন্য দায়ী। তাই বাঁধ নির্মাণ ও নদীখননের সঙ্গে জড়িত দুর্নীতিবাজ আমলা-প্রকৌশলী ও ঠিকাদারদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে।

ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য অধ্যাপক আবদুস সাত্তারের সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, সিপিবির প্রেসিডিয়াম সদস্য আবদুল্লাহ ক্বাফী রতন, বাসদের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য বজলুর রশীদ ফিরোজ, গণসংহতি আন্দোলনের সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য বাচ্চু ভূঁইয়া, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির লিয়াকত আলী প্রমুখ।

সভায় বাম জোটের একটি প্রতিনিধি দল আগামী ২৫ জুলাই থেকে গাইবান্ধা ও কুড়িগ্রাম জেলায় বন্যার্তদের মধ্যে ত্রাণকার্য পরিচালনা করবে বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।