ইতিহাস থেকে বঙ্গবন্ধুর নাম মুছে ফেলার চেষ্টা করা হয়েছে: স্থানীয় সরকারমন্ত্রী

প্রকাশ: ২১ আগস্ট ২০১৯      

সমকাল প্রতিবেদক

স্থানীয় সরকার বিভাগের মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, বৈশ্বিক ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে নির্মমভাবে হত্যা করে ইতিহাস থেকে তার নাম মুছে ফেলার চেষ্টা করা হয়েছে। কিন্তু তা সফল হয়নি। বরং ইতিহাসে তিনি চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবেন।

মঙ্গলবার রাজধানীর কাকরাইলে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল ভবনের অডিটোরিয়ামে স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাৎবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস-২০১৯ উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় এ আলোচনা সভার আয়োজন করে।

মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু আমাদের একটি স্বাধীন ও সার্বভৌম দেশ দিয়ে গেছেন। আমরা আমাদের উপর অর্পিত দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করলে দেশের মানুষ ভাল থাকবে। আর দেশের মানুষ ভাল থাকলে তার আত্মা শান্তি পাবে।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু ক্ষুধার্ত ও দরিদ্র মানুষের জন্য আন্দোলন করেছেন। জেল, জুলুম, নির্যাতন উপেক্ষা করে জাতিকে সংগঠিত করেছেন। মানুষের অধিকার আদায়ের জন্য কাজ করেছেন।

স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য এবং পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের সচিব মো. কামাল উদ্দিন তালুকদার প্রমুখ।


বিষয় : স্থানীয় সরকার মন্ত্রী তাজুল ইসলাম