সাকিব ষড়যন্ত্রের শিকার হয়ে থাকতে পারেন: ফখরুল

প্রকাশ: ৩০ অক্টোবর ২০১৯      

সমকাল প্রতিবেদক

ফাইল ছবি

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানের ওপর নিষেধাজ্ঞার ঘটনা দুঃখজনক। নিঃসন্দেহে সাকিব অত্যন্ত প্রতিভাবান খেলোয়াড়। তিনি ক্রিকেটের অবিচ্ছেদ্য অংশ। সাকিব ষড়যন্ত্রের শিকার হয়ে থাকতে পারেন।

তিনি আশা প্রকাশ করেন, সাকিব দ্রুত মাঠে ফিরে আসবেন এবং বাংলাদেশের মুখ উজ্জ্বল করবেন। বুধবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক যৌথ সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন।

এ সময় তিনি 'জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস' উপলক্ষে মাসব্যাপী কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দেন। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- ৭ নভেম্বর সকালে সারাদেশের দলীয় কার্যালয়গুলোতে দলীয় পতাকা উত্তোলন ও জিয়াউর রহমানের কবরে পুষ্পমাল্য অর্পণ। এ ছাড়া ৬ অথবা ৮ নভেম্বর আলোচনা সভা। এ ছাড়া রাজধানীতে সমাবেশের পরিকল্পনাও রয়েছে দলটির।

দেশের ক্রীড়াঙ্গনে অস্থিরতা সম্পর্কে জানতে চাইলে মির্জা ফখরুল বলেন, এ ধরনের ঘটনা আসলেই দুর্ভাগ্যজনক, বিশেষ করে সাকিবের বিষয়টি। আশা করি, এমন ঘটনা বাংলাদেশের ক্রিকেটে আর ঘটবে না। তবে দেশের সামগ্রিক ক্রীড়াঙ্গনে যে অস্থিরতা চলছে সেটা সার্বিক অবস্থার প্রতিফলন। সরকার যেভাবে দেশ চালাচ্ছে এতে কাউকে তো কোনো জবাবদিহি করতে হচ্ছে না।

তিনি বলেন, সাকিব বিশ্বের সেরা অলরাউন্ডার বলে এ ধরনের বিষয়গুলোতে অনেক রকমের চক্রান্ত থাকে, ষড়যন্ত্র থাকে। একজন প্রতিভাবান খেলোয়াড়কে বিপদে ফেলার ষড়যন্ত্র থাকে। তবে সাকিবকে নিয়ে এমন কিছু হয়েছে কিনা তা তার জানা নেই। তদন্ত হলে বেরিয়ে আসবে।

মির্জা ফখরুল বলেন, দেশের রাজনীতির ইতিহাসে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিনটি হচ্ছে ৭ নভেম্বর। স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব রক্ষার জন্য ওই দিন বিপ্লব সংঘটিত হয়েছিল। আজকে বাংলাদেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব আবারও বিপন্ন। পানির ন্যায্য হিস্যা পাচ্ছি না, সীমান্তে হত্যা বন্ধ হচ্ছে না, সমুদ্র উপকূলে রাডার বসাচ্ছে প্রতিবেশী দেশ। তবে এ বিষয়ে জনগণকে বিস্তারিত বলতেও পারছি না। এমন পরিস্থিতিতে ৭ নভেম্বর জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস যথাযোগ্য মর্যাদার সঙ্গে পালন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, হাবিব-উন নবী খান সোহেল, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, বিএনপি নেতা মীর সরফত আলী সপু, এবিএম মোশাররফ হোসেন, আবদুস সালাম আজাদ, তাইফুল ইসলাম টিপু, বেলাল আহমেদ, আ ক ম মোজাম্মেল হক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।