মির্জা ফখরুলসহ বিএনপির ৩ নেতার জামিন

প্রকাশ: ০১ অক্টোবর ২০১৯   

সমকাল প্রতিবেদক

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর- ফাইল ছবি

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর- ফাইল ছবি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকির অভিযোগে দায়ের করা মামলায় বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ দলের শীর্ষ তিন নেতাকে জামিন দিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার ঢাকার মহানগর হাকিম সত্যব্রত শিকদারের আদালতে আত্মসমর্পণমূলক জামিনের আবেদন করেন তারা। 

এরপর বিচারক ৫ হাজার টাকা মুচলেকায় তা মঞ্জুর করেন। অপর দুই নেতা হলেন- দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন এবং গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।

মঙ্গলবার আদালতে তাদের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী জয়নুল আবেদীন, মাসুদ আহম্মেদ তালুকদার, সৈয়দ জয়নুল আবেদীন মেজবাহ ও হান্নান ভূঁইয়া প্রমুখ। বাদীপক্ষে জামিনের বিরোধিতা করেন আইনজীবী আবুল কালাম আজাদ। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক জামিনের এ আদেশ দেন।

শুনানিতে আইনজীবীরা বলেন, এ মামলায় আসামিরা হাইকোর্ট থেকে জামিন নিয়েছেন। হাইকোর্ট বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছেন। হাইকোর্টের আদেশ অনুযায়ী আসামিরা আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেছেন। আসামিদের বিরুদ্ধে গুরুতর কোন অভিযোগ নেই। তাছাড়া মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অসুস্থ, তারপরও আদালতের নির্দেশ মোতাবেক তিনি আত্মসমর্পণ করেছেন। আমরা আসামিদের জামিনের প্রার্থনা করছি।

এর আগে হাইকোর্ট মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, খন্দকার মোশাররফ হোসেন ও গয়েশ্বর চন্দ্র রায়কে ৬ সপ্তাহের জামিন দিয়ে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণের আদেশ দেন। সে অনুযায়ী তারা আত্মসর্মর্পণ করেন।

প্রসঙ্গত, গত ৫ আগষ্ট বাংলাদেশ জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এবি সিদ্দিকী বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। এরপর আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে। এই তিনজন ছাড়া বিএনপির আরও নেতা এ মামলার আসামি।

গত ২৩ জুলাই বুয়েটের শিক্ষক হাফিজুর রহমান রানা রেজিস্ট্রিযোগে বাদীকে একটি চিঠি পাঠান। চিঠিতে আগামী ১৫ আগষ্ট আইএস দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পরিবারের সদস্যদের হত্যার হুমকি দেওয়া হয়।