কমিউনিস্ট ঐক্যের প্রতীক কমরেড অমল সেন: মেনন

প্রকাশ: ০৯ নভেম্বর ২০১৯      

খুলনা ব্যুরো

রাশেদ খান মেনন- ফাইল ছবি

বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন এমপি বলেছেন, কমরেড অমল সেন ছিলেন কমিউনিস্ট ঐক্যের প্রতীক। তিনি ছিলেন আমাদের পথের দিশারি। তার সারাজীবনের স্বপ্ন জনগণতান্ত্রিক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার সংগ্রাম। সেই সংগ্রাম থেকে পার্টি এক চুল পরিমাণ বিচ্যুত হবে না। আমাদের একদিকে জঙ্গিবাদ-সাম্প্রদায়িকতা; অন্যদিকে সমাজ, রাজনীতি ও অর্থনীতিতে দুর্বৃত্তায়নের বিরুদ্ধে লড়াই করে এগোতে হচ্ছে।

শনিবার খুলনার একটি হোটেলে পার্টির বিভাগীয় প্রতিনিধি সভায়ও প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেনন এসব কথা বলেন। এর আগে নড়াইলের বাকড়িতে পার্টির সাবেক সভাপতি ও উপমহাদেশের কমিউনিস্ট আন্দোলনের অন্যতম পুরোধা কমরেড অমল সেনের সমাধিতে দশম কংগ্রেসে নবনির্বাচিত কেন্দ্রীয় কমিটির পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

মেনন আরও বলেন, বিভ্রান্ত বিভক্ত কমিউনিস্টদের ঐক্যবদ্ধ করতে কমরেড অমল সেন মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে ও পরে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছেন। যে কোনো অজুহাতে ঐক্যের এ ধারাকে বিপথগামী করা যাবে না।

শ্রদ্ধা নিবেদনকালে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পার্টির সাধারণ সম্পাদক কমরেড ফজলে হোসেন বাদশা এমপি, পলিটব্যুরোর সদস্য কমরেড আনিসুর রহমান মল্লিক, কমরেড অ্যাডভোকেট মোস্তফা লুৎফুল্লাহ এমপি, কেন্দ্রীয় সদস্য কমরেড অ্যাডভোকেট শেখ হাফিজুর রহমান, কমরেড নজরুল ইসলাম, কমরেড অ্যাডভোকেট আবু বক্কার সিদ্দিক, দীপংকর সাহা দীপু ও কমরেড সবদুল হোসেন খান।

জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি কমরেড অ্যাডভোকেট মিনা মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে বিভাগীয় প্রতিনিধি সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন পার্টির নড়াইলের সভাপতি অ্যাডভোকেট নজরুল ইসলাম ও বাগেরহাট জেলা সভাপতি কমরেড অ্যাডভোকেট মহিউদ্দিন আহমেদ।

এসব অনুষ্ঠানে ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, ১১ দফা কর্মসূচির ভিত্তিতে ওয়ার্কার্স পার্টি সারাদেশে সংগ্রাম ও সংগঠন গড়ে তুলবে। আমরা জোট করি আর ঐক্য করি; নিজেদের পায়ে নিজেদের দাঁড়াতে হবে।