তরুণদের এগিয়ে এসে নেতৃত্ব দিতে হবে: ফখরুল

প্রকাশ: ১৮ নভেম্বর ২০১৯     আপডেট: ১৮ নভেম্বর ২০১৯      

সমকাল প্রতিবেদক

ফাইল ছবি

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দেশের অর্থনীতি বলতে কিচ্ছু নেই। শুধু উন্নয়নের রোল মডেলের গল্প শোনানো হচ্ছে। কিন্তু ঋণের ভারে জর্জরিত সরকার দেশকে ধ্বংস করে দিচ্ছে। এ অবস্থায় এগিয়ে আসতে হবে তরুণদের, ছাত্রদের। নেতৃত্ব দিতে হবে তাদের। কারও জন্য অপেক্ষা করলে চলবে না- কে ডাক দিল, কে দিল না সে জন্য অপেক্ষা করলে চলবে না।

সোমবার সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির মিলনায়তনে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ৫৪তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। বাংলাদেশ ছাত্র ফোরাম ও উত্তরাঞ্চল ছাত্র ফোরামের যৌথ উদ্যোগে এ আলোচনা সভা হয়।

এ সময় ছাত্র সমাজের গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকার কথা তুলে ধরে বিএনপি মহাসচিব বলেন, '৫২, '৫৪, '৬৯ সালে কেউ ডাক দেয়নি- '৯০ সালেও দেয়নি। তরুণরা নিজেরাই এগিয়ে গেছে। তাদের অনুসরণ করেছে রাজনৈতিক দলগুলো। এটাই ইতিহাস।

মির্জা ফখরুল বলেন, আজকে শেয়ার মার্কেট থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা লুট হয়ে যাচ্ছে, ব্যাংক থেকে লুট হচ্ছে। মেগা প্রজেক্টের নামে মেগা দুর্নীতি চলছে। দলীয় নিয়োগ দিয়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে ধ্বংস করে ফেলা হচ্ছে। এভাবে প্রত্যেকটি প্রতিষ্ঠানকে ধ্বংস করে ফেলা হয়েছে।

বিএনপি মহাসচিব আরো বলেন, এরকম ভয়াবহ করুণ অবস্থায় বন্দি বাংলাদেশের রাজনীতিকে মুক্ত করতে হবে। একমাত্র তারেক রহমানের নেতৃত্বেই এটা সম্ভব। তার নেতৃত্বে সবাই দলমত নির্বিশেষে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আন্দোলনের মধ্য দিয়ে এ সরকারকে পরাজিত করে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে।

তিনি বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কারাগারে আছেন। তাকে মুক্ত করতে, গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনতে, দেশকে রক্ষা করতে আসুন সবাই ঐক্যবদ্ধ হই।

ওবায়দুর রহমান চন্দন ও নাজমুল হাসানের পরিচালনায় সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মীর হেলাল। বক্তৃতা করেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, ভাইস চেয়ারম্যান খন্দকার মাহবুব হোসেন, আহমেদ আজম খান, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ফজলুর রহমান, বিএনপি চেয়ারপারসনের বিশেষ সহকারী শামুসর রহমান শিমুল বিশ্বাস, যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকন, হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, কেন্দ্রীয় নেতা ব্যারিস্টার কায়সার কামাল, শহীদুল ইসলাম বাবুল, আবদুল খালেক, আমিরুল ইসলাম খান আলিম, স্বেচ্ছাসেবব দলের আবদুল কাদির ভূঁইয়া জুয়েল, ছাত্রদলের ফজলুর রহমান খোকন প্রমুখ।