ডাকসু ভিপির ওপর আক্রমণ দেশের গণতন্ত্রে আক্রমণ: খন্দকার মোশাররফ

প্রকাশ: ২৬ ডিসেম্বর ২০১৯   

সমকাল প্রতিবেদক

ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন - ফাইল ছবি

ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন - ফাইল ছবি

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, ভিপি নুরকে আক্রমণ শুধু ভিপিকে আক্রমণ নয়, এই আক্রমণ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সব ছাত্রছাত্রীর ওপর আক্রমণ, এই আক্রমণ সারাদেশের ছাত্রসমাজের ওপর আক্রমণ। নুরের ওপর আক্রমণ সারাদেশের জনগণের চিন্তাচেতনার ওপর আক্রমণ, গণতন্ত্রের ওপর আক্রমণ। তিনি বলেন, নুরদের মতো স্বাধীনচেতা মানুষদের স্যালুট জানাই। নুরদের মতো প্রতিবাদীরা বেঁচে আছে বলেই এ দেশ থেকে অন্যায়, অপশাসন দূরীভূত হয়, হবে।

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে সর্বদলীয় ছাত্র ঐক্য ও নব্বইয়ের ডাকসুর উদ্যোগে খালেদা জিয়ার মুক্তি, তারেক রহমানের নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং ডাকসুর ভিপি নুরের ওপর হামলার প্রতিবাদে আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

ছাত্রলীগের কর্মকাণ্ডের সমালোচনা করে খন্দকার মোশাররফ বলেন, আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ অপকর্মের জন্য চিহ্নিত হয়েছে। ছাত্রলীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক চাঁদাবাজির অপরাধে বহিস্কৃত হয়েছে। ছাত্রলীগের ভাবমূর্তি নষ্ট হওয়ায় গুণ্ডামি করতে তারা নতুন সংগঠন করেছে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ। এরা কারা, কাদের সন্তান, তাদের কে মুক্তিযুদ্ধ করেছে? ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ এই মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের নেতৃত্ব দিচ্ছে। তাদের নেতৃত্বে তথা ছাত্রলীগের নেতৃত্বে সেদিন ডাকসু ভিপি নুরসহ তার সহযোগীদের দরজা বন্ধ করে, বাতি নিভিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে নির্দয়ভাবে পিটিয়েছে।

ডাকসুর সাবেক ভিপি বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমানের সভাপতিত্বে ও ডাকসুর সাবেক এজিএস নাজিমউদ্দিন আলমের পরিচালনায় আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন ডাকসুর সাবেক ভিপি আ স ম আবদুর রব, সাবেক জিএস খায়রুল কবির খোকন, সাবেক ছাত্রনেতা খোন্দকার লুৎফর রহমান, আসাদুর রহমান খান, এবিএম মোশাররফ হোসেন, শহীদুল ইসলাম বাবুল প্রমুখ।