বাংলাদেশে ইভিএম পদ্ধতির প্রয়োজন নেই: ড. মোশাররফ

প্রকাশ: ০২ জানুয়ারি ২০২০   

সমকাল প্রতিবেদক

ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন- ফাইল ছবি

ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন- ফাইল ছবি

বিএনপি অংশ নেওয়ায় ঢাকার দুই সিটি নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক হলেও সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। তিনি বলেন, ভোট ডাকাতির একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর জনগণ বিক্ষুব্ধ হয়েছে। এবার সিটি নির্বাচনে যদি এ ধরনের ঘটনা ঘটে, তবে জনগণ সেটা মেনে নেবে না। 

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবরে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন। ময়মনসিংহ জেলা (দক্ষিণ) বিএনপির নবগঠিত আহ্বায়ক কমিটির নেতাদের নিয়ে সেখানে যান খন্দকার মোশাররফ। 

ইভিএম প্রসঙ্গে বিএনপির এই নীতিনির্ধারক বলেন, প্রথম থেকেই আমরা ইভিএমের বিষয়ে প্রতিবাদ করেছি। আমরা মনে করি বাংলাদেশে ইভিএম পদ্ধতির প্রয়োজন নেই। ৩০ ডিসেম্বর জনগণ যদি কেন্দ্রে যেত, তাহলে তারা (আওয়ামী লীগ) নিয়ন্ত্রণ করতে পারত না। সে ভয়ে আগের রাতে তারা ভোট ডাকাতি করেছে।

দুই সিটি নির্বাচন সুষ্ঠু হবে- সরকারের মন্ত্রীরা এমনটি জানালেও আপনারা তাদের কথায় আশ্বস্ত কিনা- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে খন্দকার মোশাররফ বলেন, আমার মোটেই আশ্বস্ত নই। আপনাদের মনে আছে, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে দুই-দুইবার আমরা জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীর কাছে গিয়েছিলাম। প্রধানমন্ত্রী আমাদের কথা দিয়েছিলেন সুষ্ঠু নির্বাচন হবে। অথচ সেই নির্বাচনে ভোট ডাকাতি করা হয়েছে।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, সহসাংগঠনিক সম্পাদক শরিফুল আলম, ময়মনসিংহ জেলা দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক ডা. মাহবুবুর রহমান লিটন, যুগ্ম আহ্বায়ক জাকির হোসেন বাবুল, আলমগীর মাহমুদ আলম, ফখর উদ্দিন আহমেদ বাচ্চু প্রমুখ।