বিএনপির কারাবন্দি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সমাবেশ করার অনুমতি পেয়েছে বলে দাবি করেছে দলটি। শনিবার দুপুর ২টায় নয়াপল্টনে দলীয় কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবার কথা।

বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী সমকালকে জানান, সমাবেশ করার অনুমতির জন্য ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মো. শফিকুল ইসলামকে আমরা চিঠি দিয়েছিলাম। আজ (শুক্রবার) তাদের পক্ষে থেকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এ সমাবেশে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ দলটির শীর্ষ নেতাদের উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে। 

তবে পল্টন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু বকর সিদ্দিক সমকালকে বলেন, বিএনপির সমাবেশের অনুমতির ব্যঅপারে এখনো তারা কিছু জানেন না। তাদের আবেদন উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানো হয়েছে। সেখান থেকে এখনও কোনো নির্দেশনা আসেনি।

তবে পুলিশের একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে সমকালকে জানান, আগামিকাল শনিবার বিএনপিকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হতে পারে। তবে এখনও বিষয়টি চূড়ান্ত করা হয়নি।

৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়ার কারাবন্দিত্বের দুই বছর পূর্ণ হবে। দিবসটি উপলক্ষে গত ৪ ফেব্রুয়ারি সমাবেশ করার ঘোষণা দেন মির্জা ফখরুল। 

২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের সাজা দেন আদালত। এ কারাদণ্ডাদেশ বাতিল চেয়ে করা আপিলের রায়ে সাজা বাড়িয়ে ১০ বছর করেন উচ্চ আদালত। 

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে বর্তমানে ৩৩টি মামলা চলছে। দুর্নীতির মামলায় কারাবন্দি অসুস্থ বিএনপি চেয়ারপারসনকে গত বছরের ১ এপ্রিল চিকিৎসার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) ভর্তি করা হয়।