আমাদের সাংগঠনিক দুর্বলতা অনেক: ওবায়দুল কাদের

প্রকাশ: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০   

 সমকাল প্রতিবেদক

ওবায়দুল কাদের        -ফাইল ছবি

ওবায়দুল কাদের -ফাইল ছবি

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সংগঠনের নেতৃবৃন্দদের উদ্দেশে বলেছেন, অস্বীকার করার কোনও উপায় নেই যে আমাদের সাংগঠনিক দুর্বলতা অনেক। ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনের অভিজ্ঞতা থেকে আমাদের শিক্ষা নিতে হবে। সাংগঠনিক দুর্বলতাও ভোটারদের উপস্থিতির পথে অন্তরায় হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই গ্যাপ আমাদের পূরণ করতে হবে।

বুধবার দুপুরে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগ ঢাকা বিভাগের সব সংগঠনের জেলা সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও সংসদ সদস্যদের বিশেষ যৌথ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আজ দল ক্ষমতায় আছে বলেই আমরা উপলব্ধি করতে পারছি না সাংগঠনিক দুর্বলতা আমাদের ক্ষতির কারণ হচ্ছে কিনা। আমাদের শক্তিও ক্ষয় হচ্ছে। সাংগঠনিকভাবে দুর্বল হলে সরকার কখনও শক্তিশালী হবে না। শক্তিশালী সরকার তখনই হবে যখন আওয়ামী লীগ শক্তিশালী হবে। সামনে আমাদের চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচন। ঢাকা মহানগরেও একটা নির্বাচন  আছে। ঢাকা-১০ আসন নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার জন্য সর্বাত্মক কাজের চেষ্টা করতে হবে। এ নির্বাচনি কার্যক্রম পরিচালনার জন্য আপনাদের প্রস্তুতি নিতে হবে।

মুজিববর্ষ উদযাপনের কথা বলে চাঁদাবাজির প্রবণতা নিয়ন্ত্রণের নির্দেশ দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘মুজিববর্ষ উদযাপনের নামে কেউ বাড়াবাড়ি করবেন না। অতি উৎসাহী হয়ে এমন কোনও কাজ করবেন না যেটা জনমনে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করে। বঙ্গবন্ধুর ইমেজবিরোধী কোনও কাজ করা যাবে না। বঙ্গবন্ধু প্রতিষ্ঠিত, নতুন করে তাঁকে প্রতিষ্ঠা করার কিছু নেই। তাঁর জন্ম শতবার্ষিকী উদযাপন করতে গিয়ে আমরা চাঁদাবাজির দোকান যেন না খুলি। চাঁদাবাজির দোকান আপনাদের নিয়ন্ত্রণ করতে হবে।’