নিরাশ হলে চলবে না: মওদুদ

প্রকাশ: ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০   

সমকাল প্রতিবেদক

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, আমাদের নিরাশ হলে চলবে না। আমরা দেখেছি পৃথিবীতে অনেক দেশে কর্তৃত্ববাদ, স্বৈরাচার সরকারের আর্বিভাব ঘটেছে, বাংলাদেশেও ঘটেছে। কিন্তু তারা টেকেনি। এই সরকারও টিকবে না, যেতে হবে-এটা সময়ের ব্যাপার। এই সরকারকে বিদায় নিতে হবে।

শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে জিয়াউর রহমান সমাজ কল্যাণ পরিষদের উদ্যোগে ‘খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বর্তমান প্রেক্ষাপট’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

মওদুদ বলেন, এতো অত্যাচার-নিপীড়ন, এতো জেল-জুলুম, আমাদের প্রায় ২৬ লাখ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা, তাদের কত পরিবার ধ্বংস হয়ে গেছে, আমাদের কত নেতাকর্মী পঙ্গু হয়ে গেছে এবং যারা মৃত্যুবরণ করেছে তাদের পরিবার অসহায়-নিঃস্ব অবস্থায় আছে। এর পরিণতি সরকারকে ভোগ করতে হবে।

তিনি বলেন, দেশে রাজনীতি নেই, গণতন্ত্র নেই। দেশে যখন গণতন্ত্র নেই তখন দেশে আইনের শাসন, বিচার বিভাগের স্বাধীনতা বলতে যেটা আমরা বুঝি সেটাও নেই। আজ মানুষের মধ্যে ভয়-ভীতি-আতঙ্ক। মানুষ মুক্তমনে কথা বলতে চায় না, কথা বলতে পারে না।

সভা-সমাবেশে সরকারের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির সমালোচনা করে মওদুদ বলেন, এই যে সভা-সমাবেশ, সামান্য সভা, ঘরের মধ্যে সভা করতে নাকি অনুমতি লাগে….. । আমরা যদি বাইরে মিটিং করি সেটার জন্যও অনুমতি নিতে হয়। অতীতে কোনো দিনই এটা ছিলো না, কোনো গণতান্ত্রিক দেশে কোনো গণতান্ত্রিক পরিবেশে এটা হয় না।

খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য আন্দোলন ছাড়া অন্য কোনো বিকল্প নেই মন্তব্য করে মওদুদ আহমদ বলেন, খালেদা জিয়ার মুক্তি যদি আইনি প্রক্রিয়ায় সম্ভবপর না হয় তাহলে আন্দোলন ছাড়া আমাদের অন্য কোনো বিকল্প নেই। এই আন্দোলন শুধু মুখে বললে চলবে না, এটা কার্য্কর করতে হবে। এমন কর্মসূচি দিতে হবে যেটা আমরা দৃঢ়ভাবে পালন করতে পারবো।

সংগঠনের সভাপতি এম গিয়াসউদ্দিন খোকনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য জয়নুল আবদিন ফারুক, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সহ-সম্পাদক আশরাফউদ্দিন বকুল প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।