জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার জন্য রাজনৈতিক ও কূটনৈতিক প্রচেষ্টা জোরদার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের পলাতক পাঁচ খুনিকে দেশে ফেরাতে রাজনৈতিক ও কূটনৈতিক তৎপরতা বাড়িয়েছে সরকার।
শনিবার জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বনানী কবরস্থানে ১৫ আগস্টের শহীদদের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, পরাজিত শক্তি নিজেদের পরাজয় দমাতে পারেনি। শত চেষ্টায়ও তারা পরাস্ত হয়েছিল স্বাধীন বাংলার প্রাণপ্রাচুর্যের কাছে। তখনই তারা প্রগতির পথ রুদ্ধ করতে ইতিহাসের সেই ঘৃণ্য কালো অধ্যায় রচনা করেন জাতির পিতাকে সপরিবারে হত্যা করে।
ওবায়দুল কাদের বলেন, মুক্তিকামী বাঙালির সেই পুরনো ক্ষত জাগ্রত হবার দিন ১৫ আগস্ট। ভারাক্রান্ত এই দিবসের শুরুতেই শ্রদ্ধায় স্মরণ করা হয় অবিসংবাদিত এই নেতাকে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধারণ করে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দুর্নীতিমুক্ত দেশ গঠন করতে হবে। অসাম্প্রদায়িক চেতনার বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ গড়তে হবে। এটাই আমাদের লক্ষ্য।
বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, জাতীয় শোক দিবসে যারা জন্মদিন পালন করতো, সেটি এবার না করে কেককাটার সংস্কৃতি থেকে বেরিয়ে আসায় জনগণ স্বস্তি পেয়েছে।