বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন এমপি বলেছেন, ক্রসফায়ার বা যে নামেই ডাকা হোক, বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড এখন পর্যন্ত সন্ত্রাস বা মাদক নিয়ন্ত্রণে কোনো ভূমিকা পালন করতে পারেনি। বরং রাষ্ট্রকে বিপদাপন্ন করেছে। 

সোমবার পার্টির 'সন্ত্রাসবিরোধী দিবস' উপলক্ষে ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। ১৯৯২ সালের ১৭ আগস্ট রাশেদ খান মেননকে হত্যার উদ্দেশ্যে গুলি করার ঘটনা স্মরণে প্রতিবছরের এই দিনটিকে 'সন্ত্রাসবিরোধী দিবস' হিসেবে পালন করে আসছে দলটি।

টেকনাফে পুলিশের গুলিতে অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা মেজর সিনহার মত্যুর ঘটনা তুলে ধরে মেনন বলেন, মেজর সিনহার মৃত্যু রাষ্ট্রের দুটি বাহিনীকে মুখোমুখি দাঁড় করিয়ে দিয়েছিল। দুই বাহিনীর প্রধানকে নজিরবিহীন যৌথ সংবাদ সম্মেলন করে সবাইকে আশ্বস্ত করতে হয়েছে।

তিনি বলেন, কক্সবাজার মেরিন ড্রাইভে দেড়শ'র ওপর মানুষকে ক্রসফায়ারে দেওয়ার পরও গত সপ্তাহেই সেখান থেকে কয়েক লাখ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। এসব কারণে মানুষের মৌলিক অধিকার হরণকারী এই অমানবিক আচরণ এখনই বন্ধ করতে হবে।

ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরোর সদস্য নুর আহম্মদ বকুলের সঞ্চালনায় আলোচনায় আরও বক্তব্য দেন দলের সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা এমপি, পলিটব্যুরোর সদস্য আনিসুর রহমান মল্লিক, ড. সুশান্ত দাস প্রমুখ।