জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি বলেছে, করোনা মোকাবিলায় সরকারের জারি করা এক হাজার ৯৭৬ পৃষ্ঠার নির্দেশনা স্বাস্থ্য খাতের নৈরাজ্য কমাতে পারেনি। ভঙ্গুর, দুর্নীতিগ্রস্ত ও অদক্ষ রাষ্ট্রীয় ব্যবস্থাপনা দিয়ে করোনা মোকাবিলা সম্ভব নয়। স্বাস্থ্য খাতের লণ্ডভণ্ড অবস্থা এবং দুর্নীতির যে চিত্র উন্মোচিত হয়েছে, তাতে এই স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে অক্ষত রেখে যে কোনো পরিকল্পনা হবে মানুষের জীবনকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেওয়ার প্রচেষ্টা।

বুধবার জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ছানোয়ার হোসেন তালুকদার এক বিবৃতিতে এসব কথা বলেন। বিবৃতিতে আরও বলা হয়, করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ার ২০০ দিনের মাথায় দেশে পাঁচ হাজারের বেশি মানুষ মৃত্যুবরণ করেছেন। অন্যদিকে, শীতকালে করোনাভাইরাসের আরও অবনতি হতে পারে এবং বাংলাদেশ দীর্ঘস্থায়ী সংক্রমণের ঝুঁকিতে পড়তে পারে বলে বিশেষজ্ঞরা অভিমত প্রকাশ করছেন।

বিবৃতিতে বলা হয়, ভঙ্গুর স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে সম্পূর্ণরূপে ঢেলে সাজাতে স্বাস্থ্য খাতে সংস্কারের জন্য জাতীয় স্বাস্থ্য কাউন্সিল গঠন এবং এ কাউন্সিলে চিকিৎসা পেশায় সংশ্নিষ্টদেরসহ জ্ঞান-বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির অধিকারী সাংবাদিক, প্রকৌশলী, কৃষিবিদ আইনজীবী, বুদ্ধিজীবী ব্যাংকারসহ সমাজের বিভিন্ন অংশীজনকে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। এ কাউন্সিলের পরামর্শ অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করে করোনার ভয়াবহতা মোকাবিলাসহ জনগণের স্বাস্থ্য সুরক্ষার ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।