ঢাকা সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪

আংশিক চূড়ান্ত ১২১ 

২০০ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার ঘোষণা বিএসপির

২০০ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার ঘোষণা বিএসপির

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন বিএসপি চেয়ারম্যান সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ মাইজভাণ্ডারী

সমকাল প্রতিবেদক

প্রকাশ: ২৮ নভেম্বর ২০২৩ | ১৭:২৯

বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টির (বিএসপি) চেয়ারম্যান সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ মাইজভাণ্ডারী বলেছেন, আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে ১২১টি সংসদীয় আসনের বিপরীতে মনোনয়নপ্রাপ্তদের আংশিক তালিকা চূড়ান্ত করা হয়েছে। নির্বাচনে ২০০ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবের আব্দুস সালাম হলে সুপ্রিম পার্টি এবং দলটির নেতৃত্বাধীন লিবারেল ইসলামিক জোটের প্রার্থী ঘোষণা উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ ঘোষণা দেন। 

সংবাদ সম্মেলনে সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ বলেন, আমাদের জোট লিবারেল ইসলামিক জোটের পক্ষ থেকে মোট ২০০ আসনে প্রার্থী দেব। আজ ১২১টি সংসদীয় আসনের বিপরীতে মনোনয়নপ্রাপ্তদের আংশিক তালিকা ঘোষণা করছি।
  
সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমাদের মার্কা (একতারা) নিয়ে নির্বাচন করব। আমরা গণতান্ত্রিক ধারাকে অব্যাহত রাখতে নির্বাচন করছি। আমরা চাই না দেশে কোনো অগণতান্ত্রিক শক্তি আসুক।

বিএসপি ও লিবারেল ইসলামিক জোটের মনোনয়নপ্রাপ্তদের প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমাদের ৩০জন হেভিওয়েট প্রার্থী রয়েছেন। সুষ্ঠু নির্বাচন হলে যারা বিজয়ী হবেন। আমরা মনোনয়ন দেওয়ার ক্ষেত্রে সব সম্প্রদায় ও শ্রেণির প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করেছি। মনোনয়ন প্রাপ্তদের মধ্যে অন্যান্য ধর্মাবলম্বীও রয়েছেন। তৃতীয় লিঙ্গের একজনকেও গাজীপুরে প্রার্থী দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি। 
 
বিএনপি নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করলে নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক হবে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে বিএসপি চেয়ারম্যান বলেন, আমরা সংলাপের পক্ষে ছিলাম এখনও আছি। এখনও সময় আছে। দেশ ও জাতির দিকে লক্ষ্য রেখে, তাদের ভালো চাইলে সংলাপটা এখনও সম্ভব।
  
এর আগে ৩০০ সংসদীয় আসনে মনোনয়নপত্র বিক্রি করে দলটি। নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সদ্য নিবন্ধনপ্রাপ্ত দলটির নির্বাচনী প্রতীক একতারা। এ প্রতীকে বিএসপি নেতৃত্বাধীন লিবারেল ইসলামিক জোটের সদস্য রাজনৈতিক দলগুলোও নির্বাচন করছে।

আরও পড়ুন

×