করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় দলীয় নেতাকর্মীদের শতভাগ মাস্ক পরিধান ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সারাদেশে ক্যাম্পেইন করে জনগণের মধ্যে করোনা সংক্রমণের বিষয়ে সচেতনতা বাড়াতে হবে। এখন থেকে ঘরোয়াভাবে সীমিত আকারে সাংগঠনিক কার্যক্রম পরিচালনা করতে হবে। দেশের সামর্থ্যবানদের প্রতি অনুরোধ করে তিনি বলেন, করোনার এই দুঃসময়ে অসচ্ছল মানুষকে সহযোগিতা করুন।

শুক্রবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সদ্যপ্রয়াত আওয়ামী লীগের দপ্তর উপকমিটির সাবেক সদস্য, দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের ব্যবস্থাপক এবং প্রধানমন্ত্রীর সাবেক ব্যক্তিগত কর্মকর্তা মো. শাহজাহান স্মরণে আয়োজিত মিলাদ ও দোয়া মাহফিলে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন। জাতীয় সংসদ ভবন এলাকার সরকারি বাসভবন থেকে ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠানে যুক্ত হন তিনি। দলের কেন্দ্রীয় ও মহানগরসহ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা মিলাদ ও দোয়া মাহফিলে যোগ দেন।

বাংলাদেশের রাজনীতিতে সৌজন্যবোধ ও মূল্যবোধ হারিয়ে যাচ্ছে- একথা উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন,'রাজনীতিকদের মধ্যে পারস্পরিক বিশ্বাস গড়ে তুলতে হবে এবং বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে টিমওয়ার্ক গড়ে তুলতে হবে।'

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগে সুবিধাভোগী কর্মীদের দরকার নেই। দরকার শাহজাহানের মতো নিবেদিতপ্রাণ কর্মীদের। তার মতো কর্মীরাই আওয়ামী লীগের প্রাণ। দুঃসময়ে যখন কেউ থাকবে না, তখন শাজাহানের মতো নিবেদিত কর্মীরাই দলের পাশে থাকবে।

এর আগে আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা ও দলের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য প্রয়াত এইচ টি ইমামের স্মরণে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউ প্রান্তে মিলাদ ও দোয়া মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য খন্দকার গোলাম মওলা নকশাবন্দী, দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ড. সেলিম মাহমুদ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক প্রকৌশলী আবদুস সবুর, উপ-দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান, কার্যনির্বাহী সদস্য আবদুল আউয়াল শামিম ও আজিজুস সামাদ ডন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির, মহানগর নেতা নুরুল আমিন রুহুল এমপি, শরফুদ্দিন আহমেদ সেন্টু, হেদায়েতুল ইসলাম স্বপন, কাজী মোরশেদ হোসেন কামাল, মহিউদ্দিন আহমেদ মহি, গোলাম আশরাফ তালুকদার, আখতার হোসেন, রিয়াজ উদ্দিন রিয়াজ, অ্যাডভোকেট জগলুল কবির, শরিফুল ইসলাম, ইসমাইল হোসেন, মোজাম্মেল হোসেন হেলাল, আবদুল মতিন, আরিফুর রহমান রাসেল, মারুফ আহমেদ মুনসুর, আমিনুল ইসলাম শামীম প্রমুখ।

মন্তব্য করুন