হেফাজতে ইসলামের নেতাদের বিরুদ্ধে সহিংসতা-নাশকতা ও অন্তর্ঘাতের অভিযোগে দায়ের করা মামলার সঙ্গে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা দায়ের, দ্রুত বিচার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ)।

বুধবার জাসদের সভাপতি হাসানুল হক ইনু এমপি ও সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি এক বিবৃতিতে এ দাবি করেন।

বিবৃতিতে তারা বলেন, বাংলাদেশ রাষ্ট্র, সংবিধান ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে অস্বীকারকারী রাষ্ট্রদ্রোহীরা একাত্তরের যুদ্ধাপরাধীদের মতোই কঠিন শাস্তিপ্রাপ্য। যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবিতে যেমন ঐতিহাসিক গণআন্দোলন পরিচালিত হয়েছিল, তেমনই রাষ্ট্রদ্রোহী রাজনৈতিক মোল্লাদের বিচারের দাবিতে দেশের সব দেশপ্রেমিক, গণতান্ত্রিক, প্রগতিশীল ও মানবতাবাদী রাজনৈতিক, সামাজিক শক্তিগুলোকে ঐক্যবদ্ধ গণআন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

'সরকার গণহারে আলেম-ওলামাদের গ্রেপ্তার করছে'- বিএনপি, হেফাজতসহ কয়েকটি রাজনৈতিক দলের এমন বক্তব্যকে সম্পূর্ণ মিথ্যাচার দাবি করে জাসদ নেতারা বলেন, বিএনপি, হেফাজত ও তাদের রাজনৈতিক পার্টনাররা দেখাতে পারবে না দেশের কোনো মসজিদের একজন খতিব, ইমাম, মোয়াজ্জিন ও খাদেমকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। দেশের সব মসজিদেই সরকারি নির্দেশনা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ, জুমার নামাজ ও তারাবির নামাজ আদায় হচ্ছে। রাজনৈতিক মোল্লারা ধর্মকে ব্যবহার করে রাজনীতি ও ধর্ম নিয়ে ব্যবসা করে। তারা ধর্মের নামে মাদ্রাসার নিরীহ ছাত্রদের নিজেদের রাজনৈতিক স্বার্থ ও ব্যক্তিগত ভোগে ব্যবহার করে।

মন্তব্য করুন