জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান জি এম কাদের অভিযোগ করেছেন, সংশ্লিষ্টদের অদূরদর্শিতায় টিকা কূটনীতিতে ব্যর্থ হয়েছে বাংলাদেশ। কোটি কোটি টাকা মুনাফার লক্ষ্যে টিকা আমদানি হয়েছে। এ কারণেই টিকা পাওয়ার বিকল্প উৎস রাখা হয়নি। তিন পক্ষের চুক্তি অনুযায়ী এ পর্যন্ত দেশের প্রায় ৫০ কোটি টাকা লোপাট হয়েছে। কিন্তু টিকার নিশ্চয়তা মেলেনি।

মঙ্গলবার বিবৃতিতে এসব কথা বলেছেন বিরোধীদলীয় উপনেতা জি এম কাদের।

তিনি বলেন, দেশের ১৪ লাখ মানুষের টিকার দ্বিতীয় ডোজ পাওয়া নিয়ে উদ্বেগ কমছে না। আট থেকে থেকে ১২ সপ্তাহের মধ্যে দ্বিতীয় ডোজ আবশ্যক। কিন্তু স্বাস্থ্য বিভাগ আশ্বস্ত করতে পারছে না। এ অনিশ্চয়তা দুর্ভাগ্যজনক।

জি এম কাদের বলেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা প্রতিদিন করোনার তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম ঢেউয়ের ভয় দেখাচ্ছেন। জনগণকে দায়ী করে নিজেদের দায়িত্ব এড়ানোর চেষ্টা করছেন। কিন্তু করোনা প্রতিরোধে সরকারের প্রস্তুতির কথা স্পষ্ট করতে পারছেন না।

বিষয় : জি এম কাদের জাতীয় পার্টি

মন্তব্য করুন