বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান অভিযোগ করে বলেছেন, সরকারের রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে খালেদা জিয়া সুচিকিৎসার সুযোগ থেকে বঞ্চিত। একজন সাধারণ নাগরিক কিংবা অন্য রাজনীতিবিদ চিকিৎসার যে সুযোগ পান, সাবেক প্রধানমন্ত্রী হলেও তাকে সেই সুযোগ দেওয়া হচ্ছে না।

মঙ্গলবার কিশোরগঞ্জ ও নেত্রকোনা জেলা বিএনপি নেতাদের সঙ্গে এক ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসার স্বার্থে তার মুক্তি ও সব নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের আবেদন জানান তিনি। বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের ৪০তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে এ সভার আয়োজন করা হয়।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, আওয়ামী লীগ বা তাদের মিত্ররা জিয়াউর রহমানের সমালোচনা করেন। করবেই, কারণ আওয়ামী লীগ যেখানে ব্যর্থ, জিয়াউর রহমান ও বিএনপি সেখানে সফল। জিয়াউর রহমান বহুদলীয় গণতন্ত্র, সংবাদপত্রের স্বাধীনতা, খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধিসহ উন্নয়ন-উৎপাদন-সমৃদ্ধি-সুখ-শান্তির পরিবেশ কায়েম করেছিলেন।

সভায় আরও বক্তব্য দেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার শাজাহান ওমর বীরউত্তম, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, সহসাংগঠনিক সম্পাদক ওয়ারেস আলী মামুন, কিশোরগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি শরিফুল আলম, নেত্রকোনা জেলা বিএনপির আহ্বায়ক ডা. আনোয়ারুল হক প্রমুখ।

'দেশে গণতন্ত্র নেই, আছে দুর্নীতি ও সন্ত্রাস': সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদের আহ্বায়ক ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদ বলেছেন, দেশে আজ কোনো গণতন্ত্র নেই। আছে শুধু দুর্নীতি ও সন্ত্রাস। এ অবস্থার পরিবর্তন করতে হলে সবাইকে জিয়ার আদর্শের মানুষ হয়ে গড়ে উঠতে হবে। জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে জাতীয় প্রেস ক্লাবে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপি নেতা অধ্যক্ষ সেলিম ভূঁঁইয়ার সভাপতিত্বে সভায় ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) একাংশের সভাপতি কাদের গনি চৌধুরী, আইনজীবী সৈয়দ মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ, কৃষিবিদ শামীমুর রহমান শামীম, শিক্ষক নেতা জাকির হোসেন প্রমুখ বক্তব্য দেন।