আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড.হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘২০০৮ সালের ১১ জুন শেখ হাসিনা কারা মুক্তি পেয়েছেন। তার চেয়ে বড় কথা ১১ জুন দেশে প্রকৃত গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠিত হয়েছে। এদিন প্রকৃত গণতন্ত্র মুক্তি দিবস।’ 

শুক্রবার রাজধানীর কলাবাগান ক্রীড়া চক্র মিলনায়তনে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস উপলক্ষ্যে স্বেচ্ছাসেবক লীগ আয়োজিত আলোচনা সভা, দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে হাছান মাহমুদ এসব কথা বলেন। 

তিনি বলেন, ‘১/১১-এর সেনাশাসিত তত্ত্বাবধায়ক সরকার ২০০৭ সালের ১৬ জুলাই শেখ হাসিনাকে গ্রেপ্তার করে গণতন্ত্রের পায়ে শিকল পরিয়েছিল। ১১ মাস পর তার মুক্তিকে অবরুদ্ধ গণতন্ত্র মুক্ত হয়।’ 

পরে তথ্যমন্ত্রী করোনা সংক্রমণ মোকাবেলায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের উদ্যোগে স্থাপিত করোনা বুথ উদ্বোধন করেন। স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক একেএম আফজালুর রহমান বাবুর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি গাজী মেজবাউল হোসেন সাচ্চু, কাজী শহিদুল্লাহ লিটন, নির্মল চ্যার্টাজী, কৃষিবিদ আব্দুস সালাম, অ্যাডভোকেট শাহনাজ আক্তার, সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল্লাহ আল সায়েম, আরিফুর রহমান, আবির আল হাসান, মেহেদী হাসান মোল্লা, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিষয়ক সম্পাদক ওবায়দুল হক খান, দপ্তর সম্পাদক আজিজুল হক আজিজ, প্রচার সম্পাদক রফিকুল ইসলাম বিটু, গ্রন্থণা ও প্রকাশনা সম্পাদক একেএম মনোয়ারুল ইসলাম বিপুল, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভাকেট সালমা হাই টুনি, ডিজিটাল অ্যান্ড র্আকাইভ বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল হান্নান, সিপার, মনির জাস্টিজসহ কেন্দ্রীয় ও মহানগর নেতারা।