সুনামগঞ্জ থেকে ছাতক পর্যন্ত প্রস্তাবিত রেললাইন নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেনের ফেসবুক পোস্টের পাল্টা জবাব দিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। রোববার 'পরিকল্পনা মন্ত্রীর দপ্তর' নামে একটি আইডি থেকে পোস্টের মাধ্যমে এ জবাব দেওয়া হয়।

জবাবে পরিকল্পনামন্ত্রী জানিয়েছেন, সুনামগঞ্জের সঙ্গে ছাতকের রেললাইন রুট নিয়ে আব্দুল মোমেনের ভূমিকা তাকে বিস্মিত করেছে।

সুনামগঞ্জের সঙ্গে ছাতকের রেললাইন রুট নিয়ে সুনামগঞ্জের পাঁচ সংসদ সদস্যের সঙ্গে দ্বিমত রয়েছে পরিকল্পনামন্ত্রীর।

পোস্টে এম এ মান্নান বলেছেন, ওই পাঁচ সংসদ সদস্যের পক্ষ নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেলমন্ত্রীর কাছে যে আধা-সরকারি পত্র (ডিও) দিয়েছেন, তা তাকে বিস্মিত করেছে।

পরিকল্পনামন্ত্রী ফেসবুক স্ট্যাটাসে লিখেন, ‘তিনি (আব্দুল মোমেন) রেললাইন নির্মাণ নিয়ে একটি পক্ষের অবস্থান নিয়েছেন। অন্য কেউ হলে এ পরিস্থিতিতে আমার সঙ্গে যোগাযোগ করতেন। বিষয়টি সম্পর্কে জানতে চাইতেন। কিন্তু আমাদের দীর্ঘ ৫০ বছরের বন্ধুত্ব, একই সঙ্গে আমরা দুজনেই মন্ত্রিসভার সদস্য, অথচ তিনি আমার সঙ্গে এ বিষয়ে এতটুকু যোগাযোগ পর্যন্ত করেননি। আমার সঙ্গে কথা না বলে অন্য পাঁচজন সংসদ সদস্যের পক্ষ নিয়ে রেলমন্ত্রীকে ডিও লেটার পাঠানো, কিছুতেই গ্রহণযোগ্য হতে পারে না।’

এর আগে গত সোমবার এ বিষয়ে ফেসবুকে প্রথম স্ট্যাটাস দেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন।

সেই স্ট্যাটাসে পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিখেছিলেন, ‘মান্নান আমার বন্ধু, মান্নানের সাথে আমার সম্পর্ক ৫০ বছরের অধিক। আমি এবং মান্নান সুখে-দুঃখে সব সময়ই ছিলাম এবং আছি, ভবিষ্যতেও আমৃত্যু থাকব বলেই আশা করি। দুঃখজনক যে সিলেটের একটি স্থানীয় সংবাদপত্রে দেখলাম আমার এবং মান্নানের মধ্যে নাকি দ্বন্দ্ব রয়েছে এবং এই দ্বন্দ্বের কারণে নাকি সিলেটের অনেক উন্নয়ন ব্যাহত হচ্ছে! কে বা কারা এই সংবাদটি প্রচার করছেন জানি না, তবে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা এবং বানোয়াট। যে বা যারা এটি প্রচার করছেন, তারা হয়তোবা কোনো বিশেষ বা অসৎ উদ্দেশ্য হাসিলের জন্য করছেন। ফেসবুকে এই স্ট্যাটাসটির প্রয়োজন আছে বলে মনে করছি না, তবে একটি বিশেষ কারণে দিচ্ছি আর তা হলো আমার এবং মান্নানের স্থানীয় অনেক শুভাকাঙ্ক্ষী রয়েছেন আর তাঁদের মধ্যে যাতে কোনো বিভ্রান্তির সৃষ্টি না হয়।’

সুনামগঞ্জ থেকে ছাতক রেললাইন কোন দিকে যাবে, সেটা নির্ধারণে তিন থেকে চারটি রুট নিয়ে আলোচনা চলছে। এরমধ্যে সিলেট অঞ্চলের দুই মন্ত্রীর পাল্টাপাল্টি অবস্থান।