গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি বলেছেন, আইন দিয়ে শ্রমিকশ্রেণির অধিকার প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব নয়। রাজনীতি ও সংগ্রামের ভেতর দিয়ে শ্রমিকদের অধিকার আদায় করতে হবে। তিনি বলেন, বর্তমানে আমরা দুঃশাসনের মধ্যে আছি। এই দুঃশাসন থেকে মুক্ত না হলে দেশের শ্রমিকসহ মানুষের মুক্তি সম্ভব নয়।

বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন ফেডারেশনের (টাফ) সাবেক সভাপতি শাহ আতিউল ইসলামের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। 

শুক্রবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে এ আয়োজন করা হয়।

সাকি আরও বলেন, বর্তমানে শ্রমিক সংগঠন অনেক আছে। কিন্তু শ্রেণি সচেতন শ্রমিক সংগঠনের অভাব প্রকট। চলমান ক্ষমতার (সরকার) বদল না ঘটালে ট্রেড ইউনিয়নসহ শ্রমিকদের কোনো অধিকার বাস্তবায়ন সম্ভব নয়। তিনি বলেন, আতিউল ইসলাম ঐক্যবদ্ধ ট্রেড ইউনিয়ন গঠনের চেষ্টা করেছেন। তিনি নিজেকে কমিউনিস্ট আন্দোলনের কর্মী মনে করতেন।

টাফের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি তাসলিমা আখতারের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য দেন অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ, গার্মেন্টস শ্রমিক ঐক্য ফোরামের সভাপতি মোশরেফা মিশু, শ্রমিক কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি আ ক ম জহিরুল ইসলাম, ট্রেড ইউনিয়ন ফেডারেশনের সহ-সাধারণ সম্পাদক আলিফ দেওয়ান, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব বুলবুল, বহুমুখী শ্রমজীবী ও হকার সমিতির সভাপতি বাচ্চু ভূঁইয়া প্রমুখ। 

সভার শুরুতে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার সংগঠনের পক্ষ থেকে শাহ আতিউল ইসলামের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়।