নতুন নতুন বিভ‌াগ না ক‌রে প্রা‌দে‌শিক ব‌্যবস্থা প্রবর্তনের দা‌বি জা‌নি‌য়ে‌ছেন জাতীয় পার্টির (জাপা) জিএম কাদের।

মঙ্গলবার জাপার বনানী কার্যালয়ে প্রাদেশিক ব্যবস্থা বাস্তবায়ন জাতীয় সমন্বয় কমিটির সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ দাবি জানান।

জিএম কাদের ব‌লে‌ছেন, শোষণের জন‌্য বৃটিশরা প্রশাসক নিয়োগ করেছিল। পল্লীবন্ধু এরশাদ মানুষের ভোটে নির্বাচিত প্রতিনিধিদের শাসন চালু ক‌রে‌ছি‌লেন জেলা উপ‌জেলায়। ১৭ কো‌টি মানু‌ষের সেবার জন‌্য এরশা‌দের স্ব‌প্নের প্রাদেশিক সরকার পদ্ধতি বাস্তবায়ন জরুরি।

তিনি বলেন, নতুন নতুন প্রশাসনিক বিভাগ তৈরি হচ্ছে, উপনিবেশিক আম‌লের মতো প্রশাসক দি‌য়ে শাসন কর‌তে। বিভাগ না হ‌য়ে প্রদেশ হ‌লে জনগণের ভোটে নির্বাচিত প্রতিনিধিদের মাধমেই পরিচালিত হবে সকল কর্মকাণ্ড। দুর্নীতি কমবে। গণমানুষের কাছে জনপ্রতিনিধিদের জবাবদিহিতা নিশ্চিত হবে। প্রাদেশিক ব্যবস্থায় রাষ্ট্র ক্ষমতা বিকেন্দ্রীকরণ হবে, এতে কেন্দ্রীয় সরকারের ওপর থেকে চাপ কমে যাবে।

সভাপতির বক্তব্যে প্রাদেশিক ব্যবস্থা বাস্তবায়ন জাতীয় সমন্বয় কমিটির সভাপতি ও জাপার সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান ব্যারিষ্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেন, গণমানুষের জন‌্য এরশাদ প্রাদেশিক সরকার ব্যবস্থা চালু করতে চেয়েছিলেন। মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠায় প্রাদেশিক সরকার ব্যবস্থার বিকল্প নেই।

জাপা মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু বলেন, মানুষের স্বপ্ন বাস্তবায়ন করাই জাপার রাজনীতি। আগামী নির্বাচনের আগে জাপা মানুষের স্বপ্ন পূরণের রুপরেখা প্রকাশ করবে।

বৈঠ‌কে উপ‌স্থিত ছি‌লেন জাপা প্রেসিডিয়াম সদস্য ও প্রাদেশিক ব্যবস্থা বাস্তবায়ন জাতীয় সমন্বয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক সুনীল শুভরায়, সমন্বয়ক মীর আব্দুস সবুর আসুদ, সদস‌্য লেফট‌্যা‌নেন্ট জেনারেল (অব.) মাসুদ উদ্দিন চৌধুরী এমপি, আহসান আদেলুর রহমান এমপি।