চলতি ভারত-নিউজিল্যান্ড টেস্ট সিরিজে হাস্যকর এক ঘটনার জন্ম দিলেন ভারতীয় তারকা রবিচন্দ্রন অশ্বিন। বোল্ড হয়েও রিভিউয়ের আবেদন জানিয়ে বসেন এ স্পিনার অলরাউন্ডার। এই অভাবনীয় ঘটনারই সাক্ষী থাকল ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়াম।

দ্বিতীয় দিনের সকালেই চোখে পড়ে এমন হাস্যকর ঘটনা। ৭১.৫ ওভারে আজাজ প্যাটেল বোল্ড করেন অশ্বিনকে। তবে রবিচন্দ্রন স্টাম্পের দিকে না তাকিয়েই রিভিউয়ের আবেদন জানান। আসলে তিনি ভেবেছিলেন তাকে কট-বিহাইন্ড আউট দেওয়া হয়েছে। তাই বল ব্যাটে লাগেনি বলে নিশ্চিত হওয়াতেই তিনি ভুলবশত রিভিউয়ের আবেদন জানান।

পরে অবশ্য নিজের ভুল বুঝতে পেরেই সাজঘরের দিকে রওনা দেন তিনি। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে অশ্বিনের সেই কান্ড ততক্ষণে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। বিষয়টি নিয়ে যখন ক্রিকেটপ্রেমীরা ঠাট্টা-মশকরায় ব্যস্ত, তখন জানা গেল এমন অভাবনীয় বা হাস্যকরা ঘটনা অশ্বিনই প্রথম ঘটাননি।

এমন ঘটনা আগেই ঘটিয়েছেন বাংলাদেশি ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার। ২০১৭ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে গল টেস্টে ৪৫৭ রানের লক্ষ্যে চতুর্থ ইনিংসে বেশ ভালোই খেলছিল বাংলাদেশ। সেদিন ৪৮ বলে ৫৩ রান করে ছন্দে ছিলেন সৌম্য। কিন্তু আসেলা গুনারত্নের বলে বোল্ড হন সৌম্য।

সৌম্য সেদিন বুঝেই উঠতে পারেননি তার বোল্ড হওয়ার ব্যাপারটা। তিনি ভেবেছিলেন, পেছনে থাকা উইকেটকিপার ক্যাচ ধরেছেন। লঙ্কান খেলোয়াড়েরা উইকেটপ্রাপ্তির উৎসব শুরু করে দিয়েছে তখন। কিন্তু সৌম্য চেয়ে আছেন আম্পায়ারের দিকে।  রিভিউও নিয়ে ফেললেন।

আম্পায়াররা পরে সৌম্যকে বোঝালেন, রিভিউয়ের দরকার নেই, তিনি বোল্ড হয়েছেন। এত দিন এমন কাণ্ডের কথা উঠলে শুধু সৌম্যর নামই আসত, আজ থেকে আসবে অশ্বিনের নামটাও।