দুঃশাসন ও সাম্রাজ্যবাদের বিরুদ্ধে একযোগে লড়াই-সংগ্রামের আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)। 

সোমবার সিপিবির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শাহ আলম এক বিবৃতিতে এই আহ্বান জানান।

সিপিবি নেতারা বলেন, ‘বাংলাদেশে আজ গণতন্ত্র, গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠান, ভোটাধিকার, জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকার এবং মানবাধিকার ভুলুণ্ঠিত। চলছে লুটপাটতন্ত্র। এই অবস্থার অবসান ঘটিয়ে দেশকে গণতন্ত্র, ধর্মনিরপেক্ষতা ও সমাজতন্ত্র অভিমুখীনতার পথে প্রতিষ্ঠা করার জন্য প্রবল প্রতিকূলতার মুখেও দেশবাসী সংগ্রাম এগিয়ে নিচ্ছে।’ 

নেতারা বলেন, সম্প্রতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আয়োজিত ‘গণতন্ত্র সম্মেলন’-এর সঙ্গে গণতন্ত্রের কোনো সম্পর্ক নেই। নিজ দেশ ও বিশ্বে যুক্তরাষ্ট্রের আগাগোড়া ভূমিকা তার গণতন্ত্র ও মানবতাবিরোধী চরিত্রের প্রমাণ বহন করে। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধকালে যুক্তরাষ্ট্র পাকিস্তান সেনাবাহিনীর গণহত্যার পক্ষে এবং গণতন্ত্র-মানবাধিকারের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছিল। কিছুদিন আগেও যুদ্ধাপরাধী ঘাতক জামায়াতের পক্ষ নিয়ে তাকে ‘মডারেট ইসলামী দল’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছিল। 

তারা বলেন, যুক্তরাষ্ট্র অতীতের মত আজও নিজেকে ‘গণতন্ত্রের রক্ষাকর্তা’ দাবি করে বিশ্বব্যাপী গণতন্ত্র হত্যা, গণহত্যা, সেনা অভিযান, সার্বভৌমত্ব লঙ্ঘন, দেশ দখল, নয়া ঔপনিবেশিক কায়দায় লুণ্ঠন ইত্যাদি ঘৃণ্য তৎপরতা চালাচ্ছে। তার মুখে গণতন্ত্র ও মানবাধিকারের কথা মানায় না। মনে রাখতে হবে, ইতিহাস প্রমাণ করে-‘আমেরিকা যার বন্ধু, তার কোনো শত্রুর প্রয়োজন হয় না’। 

মার্কিন ষড়যন্ত্রের স্বরূপ সম্পর্কে সচেতন থাকার জন্য সিপিবি দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, সিপিবি একইসঙ্গে ফ্যাসিস্ট দুঃশাসন ও লুটরা-ধনবাদী ব্যবস্থা থেকে দেশকে মুক্ত করে মুক্তিযুদ্ধের ধারায় পরিচালনার জন্য বাম-গণতান্ত্রিক বিকল্প প্রতিষ্ঠার সংগ্রাম জোরদার করার দৃঢ় প্রত্যয় প্রকাশ করছে।