সরকার বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার প্রাণনাশের ষড়যন্ত্র করছে বলে অভিযোগ করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, রাজনীতি থেকে দূরে রাখার চক্রান্তের পর এখন তাকে চিকিৎসার সুযোগও দেওয়া হচ্ছে না।

সোমবার রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষ্যে বিএনপি আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এ অভিযোগ করেন।

সরকারের সমালোচনা করে মির্জা ফখরুল বলেন, সারাবিশ্বে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করেছে ক্ষমতাসীনরা। মানবাধিকার লঙ্ঘন করায় যাদের কারণে বিশ্ব দরবারে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে, সরকার সেই র‌্যাব কর্মকর্তাদের সাফাই গাইছে। নির্বাচন, শিক্ষা, স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ধ্বংস করে লুটপাটের অর্থনীতির জন্যও পরিচিতি পেয়েছে বাংলাদেশ।

তিনি অভিযোগ করেন, সরকার স্বাধীনতার কথা বলছে, আবার জনগণের ওপর স্টিম রোলার চালাচ্ছে। হানাদারদের চেয়ে কোনো অংশে পিছিয়ে নেই তারা।

দলের প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানীর সঞ্চালনায় সভায় দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, ঢাকা মহানগর উত্তরের আহ্বায়ক আমান উল্লাহ আমান, দক্ষিণের আব্দুস সালাম, যুবদলের সাইফুল আলম নিরব, সুলতান সালাউদ্দিন টুকু প্রমুখ বক্তব্য দেন।

এদিকে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদের উদ্যোগে এক মানববন্ধনে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর দেশের গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনে পেশাজীবীদের রাস্তায় নামার আহ্বান জানিয়েছেন।