ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

৭ জানুয়ারির নির্বাচন রুখে দাঁড়ান

বাম জোটের আহ্বান

৭ জানুয়ারির নির্বাচন রুখে দাঁড়ান

প্রতীকী ছবি

সমকাল প্রতিবেদক

প্রকাশ: ৩০ ডিসেম্বর ২০২৩ | ২০:২৩

আগামী ৭ জানুয়ারির নির্বাচন বর্জন ও রুখে দাঁড়ানোর জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছে বাম গণতান্ত্রিক জোট। জোটের নেতারা বলেছেন, একতরফা নির্বাচন করতে গিয়ে সরকার দেশকে ভয়ংকর সংকটে ঠেলে দিচ্ছে। এই নির্বাচন বন্ধ করে সরকারকে পদত্যাগ করে নির্দলীয় তদারকি সরকারের অধীনে ভোটের ব্যবস্থা করতে হবে। অন্যথায় দেশ এক ভয়ানক রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও সামাজিক সংকটে পড়বে।

আজ শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বাম গণতান্ত্রিক জোটের বিক্ষোভ সমাবেশে তারা এসব কথা বলেন। ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনের পাঁচ বছর পূর্তির দিনটিকে ‘কালো দিবস’ আখ্যা দিয়ে এ বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

বিপ্লবী কমিউনিস্ট লীগের সম্পাদক মোশারফ হোসেন নান্নুর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য দেন সিপিবির সভাপতি মোহাম্মদ শাহ্‌ আলম, বাসদের সাধারণ সম্পাদক বজলুর রশীদ ফিরোজ, বাসদের (মার্কসবাদী) কেন্দ্রীয় নেতা জয়দীপ ভট্টাচার্য, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা শহীদুল ইসলাম সবুজ, সমাজতান্ত্রিক পার্টির নির্বাহী সভাপতি আবদুল আলী প্রমুখ। পরিচালনা করেন বিপ্লবী কমিউনিস্ট লীগের কেন্দ্রীয় নেতা নজরুল ইসলাম।

বিক্ষোভ সমাবেশে নেতারা বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার ২০১৪ সালে বিনা ভোটে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়, ২০১৮ সালে ভোট ডাকাতি করে এবং আগামী ৭ জানুয়ারি একতরফা ‘ডামি’ নির্বাচন করে ক্ষমতা দখলে রাখতে তৎপর রয়েছে। নির্দলীয়-নিরপেক্ষ সরকার প্রতিষ্ঠার গণদাবি উপেক্ষা করে সরকার আজ্ঞাবহ নির্বাচন কমিশন দিয়ে একতরফা নির্বাচনী তামাশা আয়োজন করতে গিয়ে লেজেগোবরে অবস্থা করে ফেলেছে। ভোটের মাঠে জনগণের কোনো অংশগ্রহণ নেই। সরকার চালাকি করে জনগণকে ধোঁকা দিতে গিয়ে এখন নিজেরাই নিজেদের ফাঁদে পড়েছে। সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

আরও পড়ুন

×