সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের (মার্কসবাদী) ৩৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করা হয়েছে। রোববার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে নানা কর্মসূচির মাধ্যমে সংগঠনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করেন ফ্রন্টের নেতাকর্মীরা। এ উপলক্ষে রোববার ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি থেকে একটি র‌্যালি বের করেন সংগঠনের নেতাকর্মীা। মিছিলটি ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে রাজু ভাস্কর্যে সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।

সমাবেশে নেতারা বলেন, ৩৮ বছর আগে ১৯৮৪ সালের ২১ জানুয়ারি স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনের গর্ভে প্রতিষ্ঠিত হয় সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট। এ দেশের সমাজ বিপ্লবের পরিপূরক ছাত্র আন্দোলন গড়ে তুলতে সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট মার্কসবাদ-লেলিনবাদ-কমরেড শিবদাস ঘোষের চিন্তাধারার ভিত্তিতে প্রতিষ্ঠিত হয়। এ দেশের বামপন্থী আন্দোলনের ছাত্র সংগঠনগুলো যেখানে উৎপাদনমুখী-কর্মমুখী শিক্ষার উপর তাদের আদর্শিক ভিত্তি দাঁড় করিয়েছিল সেখানে আমাদের সংগঠন-সর্বজনীন, বিজ্ঞানভিত্তিক, সেক্যুলার, একই পদ্ধতির, গণতান্ত্রিক শিক্ষার দাবি নিয়ে তার প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে লড়াই করে আসছে যা সমাজ বিপ্লবের পরিপূরক।

সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ডা. জয়দীপ ভট্টাচার্যের সভাপতিত্বে এবং দপ্তর সম্পাদক সালমান সিদ্দিকীর সঞ্চালনায় সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক রাশেদ শাহরিয়ার, প্রচার-প্রকাশনা সম্পাদক রাফিকুজ্জামান ফরিদ প্রমুখ।

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের সঙ্গে সংহতি জানিয়ে তারা বলেন, শাবিপ্রবি ছাত্ররা উপাচার্যের ভিসির পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলনের মধ্যে যে দৃঢ়চেতা মনোভাবের পরিচয় দিয়েছে তাতে ইতোমধ্যে এই আন্দোলনের নৈতিক বিজয় হয়েছে। ছাত্র আন্দেলনের ক্ষেত্রে এই আন্দোলন দৃষ্টান্ত স্থাপনকারী। এ সময় তারা শাবিপ্রবি উপাচার্যের অপসারণের দাবি জানিয়ে বলেন, আজকের দিনে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর উপাচার্যদের অবস্থা কেন এই রকম হলো, রাষ্ট্রের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের সম্পর্ক কি তাও ছাত্রদের ভেবে দেখতে হবে।