আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও ১৪ দলের সমন্বয়ক- মুখপাত্র আমির হোসেন আমু এমপি বলেছেন, যারা আজ স্বচ্ছ নির্বাচনের কথা বলছেন, তারাই দেশে অস্বচ্ছ নির্বাচনের প্রবর্তন করেছেন। বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে প্রধান করে নির্বাচন কমিশন গঠন হলেও দেখা যাবে সেটা এই দলটির অন্য নেতাদের পছন্দ হবে না।

বুধবার মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ১৪ দল আয়োজিত ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

আমু বলেন, দেশের সংবিধানে সামরিক শাসনের মাধ্যমে ক্ষমতা দখলের সুযোগ না থাকলেও বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান সেটাই করেছিলেন।

তিনি আরও বলেন, ২০০৬ সালে এক কোটি ২০ লাখ ভুয়া ভোট, ইয়াজউদ্দিন আহমেদকে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান ও নিজেদের পছন্দের লোককে নির্বাচন কমিশনের প্রধান করে ক্ষমতায় টিকে থাকতে চেয়েছিল বিএনপি। তবে জনবিস্ম্ফোরণে তাদের পতন হয়েছিল।

আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়ার সঞ্চালনায় সভায় আরও বক্তব্য দেন দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল-আলম হানিফ এমপি, গণআজাদী লীগের সভাপতি এস কে সিকদার, বাসদের আহ্বায়ক রেজাউর রশীদ খান, জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি, জাতীয় পার্টির (জেপি) সাধারণ সম্পাদক শেখ শহীদুল ইসলাম, গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেন এবং ওয়ার্কার্স পার্টির পলিট ব্যুরোর সদস্য অধ্যাপক সুশান্ত কুমার দাস।