বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণায় এসে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে জাসদ নেতা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য, ট্যাক্সেস বার অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি অ্যাড. শাহ জিকরুল আহমেদ মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

শ‌নিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে গোপালগঞ্জ আইনজীবী স‌মিতিতে নির্বাচনী প্রচারণার সভা চলাকালে তার হার্ট অ্যাটা‌ক হয়। পরে আইনজীবীরা তাকে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। তার বয়স হয়েছিল ৭৩ বছর।

তার মৃত্যুতে গোপালগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতি ও জেলা জাসদের সভাপতি শেখ মাসুদুর রহমানের পক্ষ থেকে শোক জানানো হয়েছে।

অ্যাড. শাহ জিকরুল আহমেদ সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ কর্তৃক মনোনীত ও বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী প‌রিষদ কর্তৃক সমর্থিত বাংলাদেশ বার কাউন্সিল নির্বাচন ২০২২ এর সাধারণ আসনের একজন প্রার্থী ছিলেন। তিনি জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সভাপতি ও স্থায়ী কমিটির সদস্য।

গোপালগঞ্জ বার সমিতির সাধারণ সম্পাদক এম জুলকদর রহমান জানান, অ্যাডভোকেট শাহ জিকরুল আহমেদ শনিবার মানিকগঞ্জ থেকে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা শুরু করে ফরিদপুর, মাদারীপুর, রাজবাড়ী হয়ে রাতে গোপালগঞ্জে আসেন। রাতে গোপালগঞ্জ বার সমিতি অফিসে নির্বাচনী সভা চলছিল। এসময় অ্যাডভোকেট শাহ জিকরুল আহমেদ নিজের বক্তব্য শেষ করে চেয়ারে বসার পরে হৃদরোগে আক্রান্ত হন। পরে তাকে উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

অ্যাড. শাহ জিকরুল আহমেদের মরদেহ বারডেম হাসাপাতালের মরচুয়ারিতে রাখা হবে। পরবর্তীতে অস্ট্রেলিয়ায় বসবাসরত তার দুই মেয়েসহ পারিবারের সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে তার জানাজা ও দাফনের সময় জানানো হবে।

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদের সভাপতি হাসানুল হক ইনু এমপি ও সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি এক শোকবার্তায় দলের নেতা অ্যাড. শাহ জিকরুল আহমেদের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ এবং শোকসন্তপ্ত পরিবার-স্বজন-দলের সদস্যদের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জানিয়েছেন। তারা প্রয়াত নেতার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন, স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মহান মুক্তিযুদ্ধে দুঃসাহসী ভূমিকা পালনসহ দেশ-জাতি-জনগণের জন্য তার অবদান ও ভূমিকা চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে। তার মৃত্যুতে জাসদ একজন অভিজ্ঞ ও প্রাজ্ঞ নেতা হারালো।