গানের  ভিডিওর শুটিংয়ের কথা বলে ডেকে খুন করা হয়েছে ভারতের হরিয়ানার নিখোঁজ গায়িকা দিব্যা ইন্দোরা ওরফে সংগীতাকে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ভারতের রোহতক পুলিশ। গত ১১ মে থেকে নিঁখোজ ছিলেন হরিয়ানার বিনোদন জগতের এই জনপ্রিয় মুখ। রোহতকের মেহামের কাছ থেকে গায়িকার মাটিতে চাপা দেওয়া লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

ভারতীয় গণমাধ্যম জানায়, দিব্যা দিল্লিতেই থাকতেন। দিব্যার সঙ্গে প্রায় তিন দিন ধরে যোগাযোগ করতে পারছিল না পরিবার, এরপর গত ১৪ মে অপহরণের মামলা দায়ের করা হয় দিল্লি পুলিশের কাছে। তল্লাশি শুরু করে পুলিশ। জানা যায়, রোহিত নামের এক ব্য়ক্তির সঙ্গে ভিওয়ানিতে মিউজিক অ্যালবাম শুট করতে গিয়েছেন দিব্যা। সিসিটিভি ফুটেজ ঘেঁটে পুলিশ দেখতে পায়, মেহামের কাছে এক রেস্তোরাঁয় এক যুবকের সঙ্গে খাবার খাচ্ছেন দিব্যা।  

দিব্যার পরিবারের অভিযোগ, পুলিশ সময়মতো উদ্যোগ নিলে হয়তো প্রাণ বাঁচত মেয়ের। পুলিশকে গায়িকার পরিবার আগেই জানিয়েছিল, সঙ্গীতা ওরফে দিব্যার সঙ্গে কাজ করছিল এমন দুই ব্যক্তিই অপহরণ করেছে কণ্ঠশিল্পী দিব্যাকে।

শনিবার দিব্যার ফোন সুইচ অন হয়। তার পরই লোকেশন ট্র্যাক করে রোহিতকে গ্রেপ্তার করেছে দিল্লি পুলিশ। ইতোমধ্যে দিব্যাকে খুন করার কথা পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে অভিযুক্ত। রোহিতের কাছ থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে রোহতক পুলিশের সাহায্য নিয়ে দিব্যার পচাগলা লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

ভৈঁরো ভাবানি গ্রামের কাছে এক ফ্লাইওভারের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে হরিয়ানার এই গায়িকার পচাগলা মরদেহ। লাশ শনাক্তের পর ময়নাতদন্ত করা হয়। এরপর দিল্লি পুলিশের হাতে লাশ তুলে দেওয়া হয়েছে।  

পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে অভিযুক্ত রোহিত জানিয়েছে, দিব্যা তাকে ব্ল্যাকমেইল করছিল, সে কারণেই বন্ধুর সঙ্গে মিলে গায়িকাকে খুন করেছে সে। অপর অভিযুক্তকেও গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ময়নাতদন্তের প্রাথমিক প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, শ্বাসরোধে  খুন করা হয়েছে দিব্যাকে। দুই অভিযুক্তকে পাঁচ দিনের পুলিশ রিমান্ডে পাঠিয়েছেন আদালত।

বিষয় : গায়িকাকে খুন দিব্যা ইন্দোরা

মন্তব্য করুন