বগুড়ার গাবতলীতে বিএনপির সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কটূক্তি করে বক্তব্য দেওয়াকে কেন্দ্র করে আজ রোববার সেখানে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। বেলা সাড়ে ১১টা থেকে দফায় দফায় সংঘর্ষে উভয়পক্ষের কমপক্ষে ১২ জন আহত হয়েছেন। সংঘর্ষ থামাতে পুলিশ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

জানা গেছে, গাবতলীর তিনমাথা মোড়ে বেলা ১১টায় পৌর আওয়ামী লীগ প্রতিবাদ সমাবেশ আহ্বান করে। বিএনপির কয়েকজন নেতাকর্মী সেখান দিয়ে যাওয়ার সময় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে বাকবিতণ্ডা হয়। এর জের ধরে দুই পক্ষের সংঘর্ষ বাধে। এতে ইটপাটকেল নিক্ষেপে উভয় পক্ষের ১০ জন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। প্রায় দুই ঘণ্টা ধরে থেমে থেমে এই সংঘর্ষ চলতে থাকে। 

পরিস্থিতি বর্তমানে নিয়ন্ত্রণে আছে বলে জানিয়েছেন গাবতলী মডেল থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম। 

প্রসঙ্গত, ২৭ মে গাবতলী উপজেলা বিএনপির সম্মেলনে জেলা মহিলাদলের যুগ্ম সম্পাদক সুরাইয়া জেরিন রনি তার বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি করে বলেন, শেখ হাসিনা গাবতলীতে এলে টুস করে চর মারা হবে। এ বক্তব্যের পর থেকে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠন প্রতিবাদ সভা, লাঠি মিছিল ও ঝাড়ু মিছিল করে। এছাড়া সুরাইয়া জেরিন রনিকে গ্রেপ্তারের দাবি জানানো হয়।