পদ্মা সেতুর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে আগতদের মধ্যে খাবার বিতরণ করেছেন বিএনপি সমর্থনে ২০১০ সালের নির্বাচনে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে জয়ী হওয়া মোহাম্মদ মনজুর আলম।

বহুল প্রতীক্ষার পদ্মা সেতু উদ্বোধনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনুষ্ঠানস্থল থেকে কিছুটা দূরে জমায়েত হওয়া সাধারণ মানুষ ও আওয়ামী লীগ কর্মী সমর্থকদের মধ্যে মনজুর আলমের ছবি সম্বলিত খাবারের প্যাকেট ও পানির বোতল বিতরণ করা হয়।

মনজুর আলমের ছেলে মোহাম্মদ সাইফুল আলমের পক্ষে শুভকামনা জানিয়ে লেখা হয়, ‘বাংলাদেশের উন্নয়নের মাইলফলক, জননেত্রী শেখ হাসিনা অবিস্মরণীয় অবদান পদ্মা সেতুর শুভ উদ্বোধন’। পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তের বিভিন্ন এলাকাতেও কয়েক হাজার প্যাকেট বিতরণ করা হয় পিকআপ থেকে।

মনজুর আলম এক সময় আওয়ামী লীগের রাজনীতি করতেন। চট্টগ্রাম আওয়ামী লীগের দাপুটে নেতা প্রয়াত মেয়র মহিউদ্দিন চৌধুরীর শিষ্য হিসেবে পরিচিত তিনি। ২০১০ সালে তার গুরুর বিরুদ্ধেই বিএনপির সমর্থনে মেয়র প্রার্থী হন তিনি। মহিউদ্দিন চৌধুরীকে হারিয়ে চমক দেখান। বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টার পদ পান। তারপর ২০১৫ সালে আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়র প্রার্থী আ জ ম নাছির উদ্দীনের বিরুদ্ধে নির্বাচনে কারচুপি অভিযোগ করে ভোট বর্জন করেন। রাজনীতি থেকে অবসরের ঘোষণা দেন। তারপর বিএনপিতে পদ হারান। এরপর ২০১৮ সালের সংসদ নির্বাচনে চট্টগ্রাম-১০ আসনে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন চান মনজুর আলম।